তারেক সরকারের প্রতিহিংসার শিকার

22বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান বাংলাদেশ সরকারের প্রতিহিংসা ও অপপ্রচারের শিকার। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করে বৃটেন সরকারকে এব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন বৃটেনের শীর্ষস্থানীয় আইনজীবিরা।
বুধবার লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার গ্রিন বিজনেস সেন্টারে ‘গ্র ভায়োলেশন অব হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পলিটিসাইজেশন অব জুডিশিয়ারি ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক এই সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন সিনিয়র আইনজীবি স্টুয়ার্ট স্টিভেন ।
হলবর্ন চেম্বারের প্রধান স্টুয়ার্ট স্টিভেন বলেন, বিচারব্যবস্থা কারো রাজনৈতিক স্বার্থের হাতিয়ার হতে পারে না। বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থা নিরপেক্ষ নয়। এর প্রমাণ একটি রাজনৈতিক দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বেকসুর খালাস দিয়ে রায় দেয়ার কারণে বিচারককে এখন দেশ ছেড়ে পালাতে হয়েছে। একজন বিচারকের বিরুদ্ধে সরকারের এ ধরনের প্রতিহিংসামূলক আচরণ দেশ ও গণতন্ত্রের জন্য শুভক্ষণ নয়। সরকারের এ ধরনের আচরণ বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থাকে দেশে-বিদেশে  প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।
তিনি বলেন, গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও জনগণের ভোটাধিকার খর্ব করে সরকার যেভাবে একটি হাস্যকর নির্বাচন করেছে, এর বিপক্ষে বৃটেন সরকারের সরাসরি অবস্থান নেয়া প্রয়োজন।
সংবাদ সম্মেলনে বৃটেনের ১৩ জন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এবং প্রবাসী বাংলাদেশী আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।