ভয়ঙ্কর মৃত্যুর দেশে আমরা বসবাস করছি–রিজভী

indexএকটি ভয়ঙ্কর মৃত্যুর দেশে এবং অস্থির সময়ে আমরা বসবাস করছি। কারণ আজ দেশে গণতন্ত্রের লেশ মাত্র নেই। আমরা গণতন্ত্র বলতে বিবেকের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা বুঝি কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার সেই স্বাধীনতাকে আজ হত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়া পল্টনস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ মন্তব্য করেন।
বাংলাদেশে আর কোন মানুষের লাশ দাফন করার জায়গা নেই বলে মন্তব্য করে রিজভী আহমেদ বলেন, হাসিনা বাদী শাসন বাংলাদেশের ইতিহাসের সকল হিস্র শাসনকে ছাড়িয়ে গিয়েছে।  রুহুল কবির রিজভী প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে  বলেন, প্রয়োজনে আমরা আরো লাশ হবো কিন্তু বাংলাদেশে বহুদলীয় গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেই যাবো। কিন্তু আপনার ফ্যাসিস্ট ও স্বৈরাচার শাসনে গণতন্ত্র এবং জনগণের মৃত্যু হতে দেবো না।
রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের দলীয় সন্ত্রাসীরা প্রতিনিয়ত মানুষ হত্যা করছে। ফলে দেশে লাশ দাফন করার মতো আর কোনো জায়গায় অবশিষ্ট নেই। একটি দেশের স্বার্থ রক্ষাতে আওয়ামী লীগ সরকার দেশের জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। একই সঙ্গে ভারতের মদদে বর্তমান সরকার আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের শ্রমিকদের কর্মসংস্থান সুপরিকল্পিভাবে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।