সরকার ও তালেবানের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু

image_67358_0_66366 পাকিস্তান সরকারের সাথে তালেবান মনোনীত একটি দলের প্রথম দফা আনুষ্ঠানিক শান্তি আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনা থেকে এক দশক ব্যাপী জঙ্গি তৎপরতার অবসান ঘটাতে একটি রোডম্যাপ তৈরি শুরু করার কথা রয়েছে।
২০০৭ সালে পাকিস্তান তালেবান নামে পরিচিত তেহরিক ই তালেবান- দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করার পর এ পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষ নিহত হন।
পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে তিন ঘণ্টাব্যাপী এই আলোচনায় সরকারের পক্ষ থেকে পাঁচটি শর্ত বেধে দিয়ে বলা হয় এই আলোচনার মাধ্যমে শান্তির পথে যাত্রা শুরু হয়েছে।
পাকিস্তান সরকারের পক্ষে প্রধান মধ্যস্থতাকারী ইরফান সিদ্দিকি বলছিলেন পাকিস্তানে সহিংসতা বন্ধ করা কঠিন ছিল।
মি. সিদ্দিকি বলছিলেন আমাদের এই অরাজকতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। আমাদের উদ্দেশ্য দেশকে শান্তি ও ইসলামের পথে নিয়ে যাওয়া। এই দেশকে এমন একটা জায়গা বানাতে হবে সেখানে মানুষ ইসলামের শিক্ষা অনুসারে শান্তিতে জীবন যাপন করতে পারে।”
এদিকে সরকারের দেয়া শর্ত গুলো নিয়ে নেতাদের সাথে আলোচনার জন্য দেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে যেতে রাজি হয়েছে তালেবানের মধ্যস্থতাকারীরা।
২০০৭ সালে পাকিস্তানি তালেবান নামে পরিচিত তেহরিক ই তালেবান- দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করে।
জানুয়ারি মাসে তালেবানদের এক হামলায় সৈন্যসহ একশোর বেশি মানুষ নিহত হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এই আলোচনার ঘোষণা দেন।
২০০৭ সালে টিটিপি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করলে দেশটিতে কয়েক হাজার মানুষ নিহত হয়।– বিবিসি।