3দৈনিক বার্তা:  সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে এক কিশোরীকে চড় মারার ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করার অপরাধে রাজধানীর পূর্বাচল সিটির সামনে থেকে এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ক্যান্টনমেন্ট জোনের সহকারী কমিশনার মাসরুফ হোসেন দৈনিক বার্তাকে বলেন, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে ফেসবুকের ‘মজা লস’ নামে একটি পেজে প্রকাশ্যে এক কিশোরীকে থাপড় মারার ছবি প্রকাশ করা হয়। এর কিছুদিন পরে ফেসবুকে ওই কিশোরীকে থাপড় মারার ভিডিও প্রকাশ করা হয়। ‘মজা লস’ নামে ওই পেজটিতে বিভিন্ন বিষয়ে আপত্তিকর ছবিও প্রকাশ করা হয়।

সহকারী কমিশনার আরও বলেছেন, তদন্তে জানা গেছে, নিম্নবিত্ত পরিবারের ওই কিশোরীকে চড় মারার আগেই ঘটনাস্থলে কিশোর তার বন্ধুদের প্রস্তুত করে রাখে। বন্ধুরা চড় মারার ছবি তুলে রাখে ও ভিডিও করে। পরে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। তিনি বলেন, ‘জাপানে থাকার সময় ফেসবুকের ওই ছবি ও ভিডিও আমার নজরে আসে।’ সম্প্রতি দেশে ফিরে সহকারী পুলিশ কমিশনার ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে ‘মজা লস’ টিমের অ্যাডমিন প্যানেল ও সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ওই কিশোরের ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছেও খোঁজ নেওয়া হয়। পরে গত রোববার রাতে পূর্বাচল সিটির সামনের এলাকা থেকে ওই কিশোরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল সোমবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

খিলক্ষেত থানার উপপরিদর্শক মো. মনির হোসেন দৈনিক বার্তাকে বলেন, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের সময় ওই কিশোর বলেছে, এ কাজ করে সে ভুল করেছে। তার এক বন্ধু চড় মারার ছবি ও ভিডিও তুলে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে বলে দাবি করে ওই কিশোর। ওই কিশোর আরও বলেছে, গত বছরের ২ অক্টোবর কিশোরীকে সে চড় মারে। পরে স্থানীয়ভাবে তার স্কুলের ব্যবস্থাপনা কমিটি সালিস করে বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছিলেন।

এ ব্যাপারে কিশোরীর পরিবার গতকাল সোমবার খিলক্ষেত থানায় একটি মামলা করেছে। কিশোর অপরাধ আইনে তার বিচার হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।