দৈনিক বার্তা: আমি চাতক,আকাশের পানে দৃষ্টি , কখন নামবে  ফোটা-ফোটা বৃষ্টি ।
বৈশাখের শুরু থেকেই অস্বাভাবিক বেড়ে গেছে সারাদেশের তাপমাত্রা । সূর্যোদয়ের পর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত প্রায় একই তাপমাত্রা বিরাজ করছে। রাতের বেলায়ও তেমন পার্থক্য হচ্ছে না। ভ্যাপসা গরমে নাকাল রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের জনজীবন। শিশু-বৃদ্ধ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ পার করছে দুর্বিষহ দিন। সবার প্রতীক্ষা একটুখানি বৃষ্টি ।বৈশাখের শুরু থেকেই অস্বাভাবিক বেড়ে গেছে সারাদেশের তাপমাত্রা। সূর্যোদয়ের পর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত প্রায় একই তাপমাত্রা বিরাজ করছে । রাতের বেলায়ও তেমন পার্থক্য হচ্ছে না । ভ্যাপসা গরমে নাকাল রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের জনজীবন । শিশু-বৃদ্ধ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ পার করছে দুর্বিষহ দিন । সবার প্রতীক্ষা একটুখানি বৃষ্টি ।
বাইরে প্রচণ্ড গরম। বাতাসের সঙ্গে মিশে আছে মাত্রাতিরিক্ত উষ্ণতা । আর এ কারণেই প্রয়োজন ছাড়া খুব একটা ঘরের বাইরে থাকতে নারাজ সাধারণ মানুষ। কিন্তু বাস্তবতা বড়ই কঠিন । সবাইকে জীবিকার তাগিদে বের হতেই হচ্ছে । বাধ্য হয়ে বাইরে বের হলেও ঘরে ফেরার প্রহর গোনে মানুষগুলো । কিন্তু বিধিবাম, ঘরে ফিরেও শান্তির নাগাল পাচ্ছেন না তারা । ঘণ্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিং যেন নিত্যদিনের সঙ্গী হয়ে উঠেছে । অনেকটাই এমন,‌ যেন মরার উপর খাঁড়ার ঘা ।
গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন সারাদেশের মানুষ । সকলের প্রতীক্ষা কখন নামবে স্বস্তির বৃষ্টি। আবহাওয়ার পূর্বাভাস থেকে জানা যায়, দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাঙামাটিতে ৪১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস । রাজধানী ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি । সর্বনিম্ন ছিল ২৬ দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস ।3 এছাড়া রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, চট্টগ্রামে ৩৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সিলেটে ৩৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রংপুরে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, খুলনায় ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বরিশালে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ।  আবহাওয়া অধিদফতর সূত্র জানিয়েছে, সহসাই বৈশাখের ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে তুমুল বৃষ্টি নামার সম্ভাবনা নেই । কারণ এখনও বঙ্গোপসাগরে মৌসুমী বায়ু সক্রিয় হয়নি । তবে কোথাও কোথাও বিছিন্ন কিছু মেঘের কারণে সামান্য বৃষ্টি নামলেও তাপমাত্রা প্রায় একই রকম থাকবে । বুধবার সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার যে আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে তাতে দেখা গেছে সারাদেশের কোথাও একটুও বৃষ্টিপাত হবে না । দেশের বেশিরভাগ এলাকায় তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে । আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, চলতি মাসে এখনও পর্যন্ত ভারি বৃষ্টিপাতের কোন পূর্ভাভাস নেই । তবে কালবৈশাখি ঝড়ের পূর্বাভাস রয়েছে। তবে এতে দেশের সার্বিক তাপমাত্রা কমবে না ।
এদিকে, আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, খুব শিগগিরই স্বস্তির বৃষ্টি দেখা মিলবে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে পরবর্তী ১২ ঘণ্টার মধ্যে দেশের বেশকিছু স্থানে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে সেই সঙ্গে থাকতে পারে কালবৈশাখী ঝড় ।

2
আমি চাতক,আকাশের পানে দৃষ্টি , কখন নামবে ফোটা-ফোটা বৃষ্টি