কারখানা তৈরিতে মালিকদের সতর্ক হতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

0
30

2দৈনিক বার্তা: পোশাক কারখানাতৈরিতে মালিকদের সতর্ক করলেন বাণিজ্যমন্ত্রী  তোফায়েল আহমেদ। কারখানা  তৈরির সময় সব ধরনের নিরাপত্তাব্যবস্থা ও কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করতে তাগিদ দিয়েছেন তিনি।একইসঙ্গে পোশাক শিল্পকে এগিয়ে নিতে বিনাশুল্কে কারখানার যন্ত্রাংশ আমদানির সুযোগ দেয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী।বৃহস্পতিবার রাজধানীতে বিজিএমইএ ভবনে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

গত বছর সাভারে রানা প্লাজায় ভয়াবহ দুর্ঘটনায় নিহত শ্রমিকদের দোয়া ও স্মরণসভার আয়োজন করে  পোশাক প্রস্তুতকারী ও রফতাভনিকারকদের সংগঠন-বিজিএমইএ, নিট  পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি-বিকেএমইএ এবং টেক্সটাইল মিলস এসোসিয়েশন-বিটিএমইএ। বৃহস্পতিবার  বেলা  পৌনে ২টায় এ স্মরণসভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।রাজধানীর বিজিএমইএ ভবনের অডিটরিয়ামে আয়োজিত স্মরণসভায় সাভারের রানা প্লাজা ধসে ক্ষতিগ্রস্তদের স্মরণ করতে গিয়ে কাঁদলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদও।

অশ্র“সজল নয়নে তোফায়েল আহমেদ বলেন, রানা প্লাজায় আহত শ্রমিকরা এসেছেন। এসেছে ফুলের মতো এতিম বাচ্চারা। এদের চোখে পানি দেখে নিজেকে সংবরণ করা কঠিন। আসুন এদের পাশে দাঁড়াই।তিনি বলেন, রানা প্লাজা ট্র্যাজেডি থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। যেন এ ধরনের দুর্ঘটনা আর না ঘটে। এদেশের  পোশাক শিল্পের অগ্রযাত্রাকে বাধা  দেওয়ার  জন্য  দেশি-বিদেশি চক্রান্ত কাজ করছে। সবাই মিলে একসঙ্গে  যেকোনো ধরনের ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, মালিকপক্ষকে বিশ্বের এক নম্বর শিল্পে যেতে কমপ্লায়ান্সের দিকে নজর দিতে হবে। আমরা পণ্যের বহুমুখীকরণের সঙ্গে বাজারমুখী করণের চেষ্টা করছি।

স্মরণসভায় বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, রানা প্লাজার শ্রমিকদের জন্য গঠিত  সেলটির কার্যক্রম চলছে। এর কার্যক্রম চলতেই থাকবে। কারও কাছে যদি এমন কোনো তথ্য থাকে  যে,  কেউ  কোনো সাহায্য পায়নি বা পুনর্বাসন করা প্রয়োজন, তবে তাদের তথ্য বিজিএমইএ’র  সেলে জমা দিন। আমরা সব ব্যবস্থা  নেবো।আন্তর্জাতিক  ক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে পর্যাপ্ত দামে পণ্য  কেনার আহ্বান জানিয়ে শ্রমিকনেত্রী নাজমা আক্তার বলেন, ক্রয়ের  ক্ষেত্রে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করুন, নয়তো কারখানার মালিকপক্ষ শ্রমিকদের প্রাপ্ত সুবিধাদি  দেবে না, তাতে তাজরীন ও রানা প্লাজার মতো এমন দুর্ঘটনা ঘটতেই থাকবে। এসব ঘটনাকে রুখতে হলে আপনাদেরও ( ক্রেতা প্রতিষ্ঠান) এগিয়ে আসতে হবে।

সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন,ভুল-ভ্রান্তি আমাদের আছে। কেউই ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। তবুও এমনভাবে সংবাদ পরিবেশন করুন যাতে বিদেশে আমাদের সুনাম ক্ষুন্ন না হয়।

সকালে বিজিএমইএ ভবনের সামনে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে  শোকর্যালি হয়। দুপুরে ভবনে শ্রমিকদের জন্য দোয়া মাহফিল হয়। এতে মোনাজাত পরিচালনা করেন বায়তুল  মোকাররমের খতিব মাওলানা  মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য  দেন বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু এমপি, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি প্রমুখ। এছাড়া নিহত শ্রমিক ও কর্মকর্তাদের স্বজনরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারে রানা প্লাজা ধ্বসেএক হাজার ১৩৫ শ্রমিক নিহত হন। দুই হাজার ৪৩৮ জনকে  সেখান  থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। দিনটি স্মরণে  দেশের সব  পোশাক কারখানায় কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়।