বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়: লেভি

0
36
2
ঢাকা সফররত ফরাসি সাংবাদিক বার্নার্ড হেনরি লেভি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত করেন। ছবি: বাসস

ফরাসি সাংবাদিক বার্নার্ড হেনরি লেভি বলেছেন, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ তার জীবনের গৌরবোজ্জ্বল শ্রেষ্ঠ সময়।বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়: লেভি

শনিবার ঢাকা সফররত হেনরি লেভি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে সৌজন্য সাক্ষাতকালে এ কথা বলেন বলে জানিয়ছে সরকারি বার্তা সংস্থা বাসস।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিল সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা জানান।

শাকিল বলেন, ১৯৭১ সালে বিশিষ্ট ফরাসি উপন্যাসিক আঁন্দ্রে মালরোর আহ্বানে পশ্চিমা বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক ব্রিগেডের একজন সদস্য হিসেবে লেভি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু লেভিকে অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে চাকরি দেন। বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয়ের উপর লেভির লেখা ‘লেস ইনডিজ রুজস’ বইটি এ বছর বাংলায় প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের কঠিন সময়ের কথা স্মরণ করে লেভি বলেন, বাংলাদেশ অতীতে একটি ঔপনিবেশ ছিল। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু মাত্র সাড়ে ৩ বছরে একে স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে পুনর্গঠিত করেন, যা বিশ্বে নজিরবিহীন।

তিনি বলেন, একজন বিপ্লবী নেতা হিসেবে বঙ্গবন্ধুর নাম চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের জাতির গৌরব। আমাদের একমাত্র দায়িত্ব হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত শিক্ষিত জাতি গঠন, এ লক্ষ্য অর্জনে আমরা নিরলসভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের কথা বলতে গিয়ে তিনি ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নৃশংস হত্যার শিকার বঙ্গবন্ধু পুত্র শেখ জামালের সঙ্গে তার ঘনিষ্ট মুহুর্তগুলোর কথা স্মৃতিচারণ করে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

বাংলাদেশের সামাজিক-অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করে লেভি বলেন, আজ বিশ্ব দরবারে একটি আধুনিক গণতান্ত্রিক দেশের মডেল হিসেবে বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয় ঘটেছে।

ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত মিশেল ট্রিংকুইয়ার এ সময় উপস্থিত ছিলেন।