নাসিকের প্যানেল মেয়রসহ ৫ জন অপহরণ, গাজীপুরে গাড়ি উদ্ধার

0
49

najrul দৈনিক বার্তা : নারায়ণগঞ্জের অপহূত প্যানেল মেয়র নজরুলের গাড়িটি গাজীপুরের গজারী বন থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নজরুল ও তার পাঁচ সহযোগীর কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। আদালত থেকে ফেরার পথে ৪ সহযোগীসহ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ নজরুল ইসলামকে অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার দুপুর আড়াইটায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। তবে কে বা কারা তাদের অপহরণ করেছে তা জানা যায়নি। এ ঘটনায় কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের সমর্থকরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক বাসস্টান্ডে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে। এদিকে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে মেয়র নজরুলকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এ অবিযোগ অস্বীকার করেছে। কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা অভিযোগ করেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের করা একটি মামলায় আদালতে হাজিরা দিয়ে বাসায় ফেরার পথে রোববার দুপুর আড়াইটায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। স্থানীয় অপর কাউন্সিলর নুর হোসেনের সঙ্গে তার স্বামীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। কয়েক দিন আগে ওই কাউন্সিলরের লোকজন আমার স্বামীকে অস্ত্র ঠেকিয়ে ভয়ভীতি দেখায়। নুর হোসেনের লোকজনই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রোববার দুপুর আড়াইটায় নারায়ণগঞ্জ আদালত থেকে বের হয়ে নজরুল ইসলাম তার ব্যক্তিগত গাড়িতে ওঠেন। এ সময় কয়েকজন তার গতি রোধ করে গাড়িসহ ৫ জনকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকতার হোসেন ও আব্দুল মতিন বলেন, কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ ৫ জনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।তবে কে বা কারা তাদের অপহরণ করেছে তা জানা যায়নি। এ ঘটনায় কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের সমর্থকরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করেন। এ ঘটনার পর বিকালে নজরুল ইসলামের শ্বশুর শহিদুল ইসলাম চেয়ারম্যানের নের্তৃত্বে নজরুল ইসলামে সমর্থকরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক বাসস্টান্ডে ব্যারিকেড দেয়। এসময় নজরুল ইসলামের সমর্থকরা যাত্রীবাহী বাস আল-বারাকা পরিবহন (ঢাকা মেট্টো ব-১৪-৬০০৩), মৌলভী বাজার জ-১১-০০৬১, পিকাপভ্যান (নং-ঢাকা মেট্টো ন-১৬-৮২২৯), ঢাকা মেট্টো নং-১৪-২২৪৫ ও ঢাকা মেট্টো ড-১১২৫৩৭ সহ ১০/১৫ টি গাড়ির চাকা পাংচার করে দেয়। পরে তারা রাস্তায় শুয়ে পড়ে। এর আগে তার কিছু সমর্থক লিংক রোড এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ব্যারিকেড দিয়ে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে দেয়। পরে র‌্যাব-১১ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয় লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।