বর্তমান সরকারের সকল কার্যক্রম অবৈধ:নোমান

0
38

1দৈনিক বার্তা : বিএনপি’র ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বলেছেন, এরা সংসদ সদস্য নয় দখলদার। বাংলাদেশের জনগণ তাদের সংসদ সদস্য হিসাবে মনে করে না। বর্তমান সরকারের সকল কার্যক্রম অবৈধ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার বেলা ১২টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি’র সকল নেতা-কর্মীর মুক্তির দাবিতে ঢাকা  জেলা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা ছাত্রদলের আয়োজনে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও বিএনপি’র যুগ্ম-মহাসচিব, ডাকসু’র সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমানসহ সব  নেতাকর্মীর মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান এ কথা বলেন।

নোমান আরো বলেন, সরকারের সমালোচনা করা সাংবিধানিক অধিকার। বর্তমান সরকার আমাদের  সে অধিকার তো দেয়ই নাই,বরং হাজার হাজার  নেতা-কর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে বন্দি করে রেখেছে।

জনবিছিন্ন হয়ে এই ফ্যাসিবাদী সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতা আকরে ধরে আছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল  নোমান।

তিনি বলেন,সংবিধানে আছে জনগণের  মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা। কিন্তু এই সরকার  দেশের মানুষের  মৌলিক অধিকার  থেকে বঞ্চিত করে বিনা নির্বাচনে ১৫৩ জন নির্বাচিত হয়ে নিজেকে সংসদ সদস্য হিসেবে দাবি করেন।

নোমান বলেন, আমরা (বিএনপি) ও বাংলার জনগণ তাদের সংসদ সদস্য হিসেবে মানি না। যারা রাজনীতি করেন না  সে সব সাধারণ মানুষও এই সংসদ সদস্যদের মানেন না।

তিনি বলেন,  রেন্টার বিদ্যুৎ সার্ভিস কার্যক্রমের নামে এ সরকার হাজার হাজার  কোটি টাকা লুট করেছে। আর বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি করে জনগণের ওপর চাপিয়ে দিয়েছে।

সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রাম করার অধিকার আছে। কিন্তু এই সরকার সংবিধান লঙ্ঘন করে মিথ্যা মামলা, কারাবদ্ধ করে আন্দোলন দমিয়ে রাখতে চাইছে বলে মন্তব্য করে  নোমান বলেন, কিন্তু এ সরকার ভুলে গেছে কারাগারে নিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যায় না। বরং আন্দোলনের গতি আরো বৃদ্ধি পায়।

গুম ও হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমাদের জানতে হবে। কারণ এ সরকারের আমলে যে পরিমাণে গুম-খুন হচ্ছে, প্রিয় মানুষকে দাফন করার মতো সুযোগ পাচ্ছে না পরিবারের মানুষ। সাধারণ মানুষ তাদের কাছে অসহায় হয়ে পড়েছে।

এ সরকারে আমলে আখ চাষিরা আখের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না অভিযোগ করে তিনি বলেন, বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি হওয়ার কারণে উৎপাদনের খরচ  বেড়ে  গেছে। কিন্তু ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় কৃষকরা হতাশায় দিন কাটাচ্ছে।

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের মামলার বিষয়ে তিনি বলেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলা টিকবে না।

তিনি বলেন, তিস্তা অভিমুখে বিএনপির লংমার্চের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ অনেক কথা বলেছে। বিএনপি দেশের কথা চিন্তা করে তিস্তা নদীর পানি জন্য লংমার্চ করেছে।

ঢাকা ছাত্রদলের আয়োজনে সংগঠনের সভাপতি রেজাউল কবির পলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনপি’র আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার জিয়া, বিএনপি’র ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন  চৌধুরী অ্যানি, বিএনপির নির্বাহী কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তৈয়বুর আলম খন্দকার, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি  মো. নাজিমদ্দিন আলম প্রমুখ।