2দৈনিক বার্তা – লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে চুরির অপবাদ ও স্বামী-শাশুড়ির নির্যাতন সইতে না পেরে পবিত্র কোরআন’র শরিফের কয়েক পাতা পুড়িয়ে আকলিমা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। সে ১০ নং রায়পুর ইউনিয়নের দেবিপুর গ্রামের নার্সারী ব্যবসায়ী মো. কাশেমের স্ত্রী। মঙ্গলবার সকালে ওই গ্রামের স্বামীর বাড়ীতে ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে পড়লে স্বামী ও শাশুড়ি পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ কোরআন উদ্ধার  ও গৃহবধুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
এলাকাবাসী জানান, একটি সোনার চেইন চুরিকে কেন্দ্র করে কাশেম তার স্ত্রী আকলিমাকে বেদম মারধর করে। পরে আকলিমা তার শরিরে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে, আত্মহত্যা করতে না পেরে পবিত্র কোরআন শরিফে আগুন ধরিয়ে দিলে কয়েকটি পাতা পুড়ে যায়।
এঘটনায় গৃহবধু আকলিমা আক্তার বলেন, বিয়ের পর থেকে যৌতুক লোভি স্বামীর অত্যচারে অতিষ্ট হয়ে কয়েকবার অত্মহত্যার চেষ্টা করি। কোরআন ধরেও চুরির ঘটনায় নির্দোষ হতে পারিনি। চেইন চুরির অপবাধ দিয়ে স্বামী ও শাশুড়ি নির্যাতন করে। তাই এঘটনা ঘটিয়েছি।
রায়পুর থানার এসআই মো. আবুল বাসার বলেন, গৃহবধুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পবিত্র কোরআন শরিফ পোড়ানো ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।