4দৈনিক বার্তাঃ সুন্দরবনের ৫ একরের বেশী এলাকা পুড়ে গেছে । বুধবার রাতে বনবিভাগ আগুন নিয়ন্ত্রণে থাকার কথা জানালেও এখনও বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষিপ্ত আকারে আগুন জ্বলছে । বনবিভাগ,টাইগার টিম,ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজন যৌথভাবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ফায়ার সার্ভিস ও বন বিভাগ দাবী করেছে দুর্গম এলাকা হওয়ায় আগুন নিয়ন্ত্রণ করায় বিলম্ব হচ্ছে । আজ সন্ধ্যা নাগাদ আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেন । পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের গুলিশাখালী ও আমুরবুনিয়া ফরেস্ট ক্যাম্পের মাঝামাঝি বাইশেরছিলা এলাকার গহীন অরণ্যে আগুন লাগে। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বনজীবীরা সুন্দরবনের গাছ-পালায় দাউদাউ করে আগুন জ্বলতে দেখে বন বিভাগকে খবর দেয়। খবর পেয়ে মোড়েলগঞ্জ ও শরণখোলা ফায়ার সার্ভিস সদস্যদের নিয়ে মংলাস্থ চাঁদপাই রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন। রেঞ্জার আবুল কালাম আজাদ রাত সাড়ে ১০টায় জানান, বন কর্মকর্তা কর্মচারীরা স্থানীয়রা নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছেন।

তিনি অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও সুন্দরবনে আগুনে কি পরিমাণ এলাকার গাছপালা পুড়ে গেছে সে বিষয়টি জানাতে পারেননি। এ কর্মকর্তা আরো জানান,পূর্ব সুন্দরবনে মরাভোলা নদী এলাকা পলি জমে নদীর দু’পাড় উঁচু হয়ে যাওয়ায় শুষ্ক মৌসুমে পাতা পড়ে ও বনের গাছপালার শিকড়ে মরে একধরনের গ্যাসের সৃষ্টি হয়। কোন বনজীবীর বিড়ি, সিগারেট বা মৌয়ালদের ফেলে দেয়া আগুন ওই গ্যাসের সংস্পর্শে এলে বনে আগুন ধরে যায়। ওই এলাকায় প্রায় প্রতি বছরই এরকম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে।পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) আমীর হোসাইন চৌধুরী মুঠোফোনে জানান, অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল বাইশেরছিলা এলাকায় বন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীর ৬০ সদস্যের একটি দল আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেছে।