1দৈনিক বার্তাঃ বিএনপি স্থায়ী কমিটি সদস্য লেফটেন্যান্ট  জেনারেল (অব:) মাহবুবুর রহমান বলেছেন,দেশের মানুষ জানে না তাদের মৃত্যু স্বাভাবিক হবে কী না, দেশের মানুষ এখন স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চায়।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ভূমিহীন দল আয়োজিত ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে গণতন্ত্র পুনঃরুদ্ধার ও শহীদ জিয়া’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

দেশ আজ মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে বলে উল্লেখ করে মাহাবুব বলেন, সরকারকে আর  কোন সুযোগ দেয়া হবে না। তাদেরকে এখনই উচিত জবাব দেয়ার মাধ্যমে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। সরকার সারা  দেশে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে।বাংলাদেশ এখন দস্যুদের দেশে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান।

মাহবুব বলেন, যে দেশে দিনেদুপুরে খুন,গুম, অপহরণ ও প্রকাশ্যে অগ্নিসংযোগ করে মানুষকে পুড়িয়ে মারা হচ্ছে তা দস্যুদেরকেও হার মানায়। দেশে এখন ভয়াবহ পরিস্থিতি চলছে।তিনি বলেন, আর মুখে  কোনো আন্দোলনের কথা নয়,  দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে নামতে হবে। মানুষকে বাঁচাতে হলে রাজপথে নামা ছাড়া কোনো উপায় নেই। দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে এই সরকারকে হঠাতে হবে।

মাহবুবুর রহমান বলেন, এ দেশের মানুষ জিয়াউর রহমানের  নেতৃত্বে পাকিস্তানি পশুদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে দেশ স্বাধীন করেছিলো। এখন এ  দেশে স্বাধীনতা নেই। এ অবস্থা থেকে  দেশেকে রক্ষা করতে হবে।  দেশকে রক্ষা না করলে  দেশের অর্থনীতিরও উন্নতি হবে না।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের  চেতনাকে বাস্তবায়িত করতে হলে সরকারের পতন ঘটাতে সকলকে আন্দোলন করতে হবে। এ সময় তিনি প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের প্রশংসা করেন।জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেন, দেশ আজ গণতন্ত্রহীন হয়ে পড়েছে। দেশের গণতন্ত্র দিল্লির কাছে বলি হয়ে  গেছে।

১৯ দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, সরকার সভা-সমাবেশে যত বাধাই দিক না  কেন আমাদের যদি ইচ্ছা থাকে তাহলে সরকার  কেন কেউই আমাদের রুখে দিতে পারবে না। মোদীর কথা উল্লেখ করে শফিউল আলম বলেন, মোদী সরকার নির্বাচিত হওয়ায় আমরা খুশি, তবে বেশি খুশি হবার কোন মানে নেই। কারণ সীমান্ত হত্যা ও ৫৪টি নদী বিষয়ে নানা ধরনের চুক্তি এখনো বাস্তবায়িত হয়নি।

সভায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু বলেন, স্বৈরাচার এরশাদই জিয়াউর রহমানের প্রকৃত খুনি। শুধু জিয়াকেই নয় কর্নেল মঞ্জুরকেও হত্যা করেছে।

এরশাদের কঠোর সমালোচনা করে দুদু বলেন, এরশাদ দেশের গণতন্ত্র হত্যাকারীদের মধ্যে অন্যতম। তিনি শুধু হত্যাকারী নন একদিকে যেমন দুর্নীতিবাজ অন্যদিকে নারী নির্যাতনকারী।

আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী ভূমিহীন দল।জাতীয়তাবাদী ভূমিহীন দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তালেবের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক কর্মচারী দলের সভাপতি জাকির  হোসেন, মারুফ আহমেদ, আবু নায়েব রহমত উল্লাহ, হাবীবুর রহমান হাবীব প্রমুখ।