11ঢাকা,৬জুলাই, দৈনিক বার্তা : কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এক লাখ ৭০ হাজার ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। তবে ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করা যায়নি।

৪২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আবু জার আল জাহিদ বলেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার বড় চালান নাফ নদ হয়ে শাহপরীর দ্বীপ এলাকায় আসছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে সকালে ওই এলাকায় টহল দেওয়া হয়। মিয়ানমারের মংডু শহরের খাল দিয়ে একটি ফিশিং ট্রলার নাফ নদের জলসীমা অতিক্রম করে বঙ্গোপসাগরে যাওয়ার চেষ্টা করে। ট্রলারটিকে থামানোর সংকেত দেওয়া হলে তারা তা অমান্য করে পালানোর চেষ্টা করে।

এ সময় বিজিবির জওয়ানেরা ট্রলারটিকে লক্ষ্য করে গুলি চালালে পাচারকারীরা ট্রলারটির গতিপথ পরিবর্তন করে মিয়ানমারের দিকে পালানোর চেষ্টা করে। বিজিবি ট্রলারটিকে ধাওয়া করলে পাচারকারীরা নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মিয়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়। এ সময় টহল দল এক রাউন্ড ফাঁকা গুলি করলে ট্রলারে থাকা লোকজন নদীতে লাফিয়ে পালিয়ে যায়। ট্রলার থেকে উদ্ধার করা হয় এক লাখ ৭০ হাজার ইয়াবা।

এসব ইয়াবার আনুমানিক মূল্য পাঁচ কোটি ১০ লাখ টাকা হবে বলে উল্লেখ করেন এ বিজিবি কর্মকর্তা।পরে বিজিবি ট্রলারটিকে নিয়ন্ত্রণে এনে আটক করতে সক্ষম হয়।

উদ্ধার করা ইয়াবা বড়ির আনুমানিক মূল্য পাঁচ কোটি ১০ লাখ টাকা বলে ৪২ বিজিবির অধিনায়ক জানান। তিনি বলেন, টেকনাফে আটক করা ইয়াবার চালানের মধ্যে এটি বড় চালান।

২৭ এপ্রিল ভোরে বিজিবি-র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত দুই ইয়াবা ব্যবসায়ী জাহেদ হোসেন ওরফে জাকু ও ফরিদুল আলম নিহত হওয়ার পর আবারও ইয়াবার একটি বড় চালান আটক করা হলো।