যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও সদিচ্ছার অভাবে সুষ্ঠুভাবে কাজ হচ্ছে না: কাদের

obaidul Kaderদৈনিকবার্তা-২৩ আগস্ট: নিজস্ব সংবাদদাতা :সড়কের জমি চিহ্নিত ও অবৈধ দখল থেকে উদ্ধার করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নবীণ প্রকৌশলীদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের৷ এসময় মন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়েও কেউ অবৈধ স্থাপনা বসাতে পারবে না৷শনিবার বেলা ১১টায় ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের ‘উন্নয়নমূলক ও রক্ষণাবেক্ষণ কর্মকাণ্ডের অগ্রগতি ও সার্বিক পর্যালোচলা বিষয়ক সভায় মন্ত্রী প্রকৌশলীদের এ নির্দেশ দেন৷

শনিবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে মাঠপর্যায়ে কর্মরত প্রকৌশলীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ নির্দেশনা দেন তিনি৷দুর্নীতি ঠেকাতে এবং পেশাদারিত্বের মান ধরে রাখতে প্রকৌশলীদের পদন্নোতির ক্ষেত্রে সিনিয়রিটি লঙ্ঘন করা হবে না বলে জানান যোগাযোগমন্ত্রী৷এসময় প্রকৌশলীদের সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র সদিচ্ছার অভাবে সুষ্ঠুভাবে কাজ সম্পন্ন হচ্ছে না৷ তাই জনস্বার্থে নিজেদের মধ্যে সমন্বয় করে আন্তরিকভাবে কাজ করার পরামর্শ দেন তিনি৷ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কের যে অবৈধ দখলে জমি আছে সেগুলো উদ্ধার করতে হবে৷ বিশেষ করে রাস্তা উদ্ধার করতে হবে৷

সড়ক ও জনপদ অধিদফতরে কর্মরত প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কিছু কিছু লোক আপনাদের হয়ে আমার কাছে আসে৷ সেটা কেন আসে আমি জানি৷ আপনারা বদলির জন্য রাজনীতিবিদদের দিয়ে আমার কাছে তদবির করবেন না৷আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা রাজনীতিবিদদের দিয়ে তদবির না করিয়ে সঠিকভাবে বদলির জন্য আবেদন করুন৷ কোনো রাজনীতিবিদ কারো জন্য তদবির করলে তাকে নোটিশ দিয়ে ডাকা হবে৷

প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সড়কের যে সব জায়গা অবৈধ দখলে আছে সেগুলোকে চিহ্নিত করতে হবে৷ চিহ্নিত করে লোকাল অফিসের সঙ্গে কথা বলে সেগুলো উদ্ধার করতে হবে৷ আর যেসব জায়গা রাজনৈতিক কারণে দখলে আছে সেগুলো মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপে উদ্ধার করা হবে৷

যানবাহন চলাচলের সুবিধার জন্য অবৈধ দখলকৃত রাস্তা উদ্ধার করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, যানবাহন চলাচলের জন্য যতটুকু রাস্তা উদ্ধার করা দরকার তা উদ্ধার করতে কোনো আপস নেই৷ রাস্তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অনঅনুমোদিত ব্যাটারিচালিত যানবাহন চিহ্নিত করে এগুলোর চলাচল বন্ধ নিশ্চিত করতে হবে৷ এগুলো যেভাবে বাড়ছে তাতে যানজট এবং দুর্ঘটনা দুটোই বাড়বে৷

মন্ত্রী সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সারা দেশে যে ওজন নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র রয়েছে সেগুলো সচল করে অনিয়ম দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে৷মন্ত্রী জানান, সাতটি ওজন নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের মধ্যে মাত্র পাঁচটি সচল রয়েছে৷ এগুলোতেও অনিয়ম দুর্নীতি রয়েছে৷ রাস্তা ঠিক রাখতে হলে ওভারলোডিং মেশিন কার্যকর করতে হবে৷

প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা কোনো কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে আমাকে দিয়ে মিডিয়ায় মিথ্যা বলাবেন না৷ আমি নিজে থেকেই কোনো কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে কথা বলি না৷ যা বলি তা আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করেই বলি৷মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সড়ক ও জনপদ অধিদফতরের সচিব এনএম সিদ্দিক, বিদায়ী প্রধান প্রকৌশলী মফিজুল ইসলাম রাজ খান, দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী এম ফিরোজ কবির প্রমুখ৷