মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে গাজার দুটি বহুতল ভবন গুঁড়িয়ে দিয়েছে বর্বর ইসরাইলি বাহিনী।

0
69

88031_1দৈনিকবার্তা,২৫ আগস্ট: মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে গাজার দুটি বহুতল ভবন গুঁড়িয়ে দিয়েছে বর্বর ইসরাইলি বাহিনী।
শনিবার রাতে বিমান হামলা চালিয়ে গাজা শহরের একটি ১২ তলা ভবন গুঁড়িয়ে দেয়ার পর রোববার সকালে রাফার আরেকটি সাত তলা ভবন গুঁড়িয়ে দেয়া হয়।
ইসরাইল দাবি করেছে, সাত তলা ভবনটিতে হামাসের অপারেশন রুম ছিল। তবে সেজন্য ৪৪টি ফ্ল্যাটের পুরো ভবনটি কেন ধ্বংস করা হলো তার কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনাবাহিনী।
মাহের আবু সিডো নামের স্থানীয় এক অধিবাসী জানান, মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ব্যবধানে রোববার ভবনটিতে দু’দফা হামলা চালায় ইসরাইলি বিমান।
‘ইসরাইল রাষ্ট্রটা উন্মাদ হয়ে পড়েছে। এক মিনিটেরও কম সময়ের ব্যবধানে ৪৪টি পরিবার উদ্বাস্তুতে পরিণত হলো। তারা সবকিছু হারিয়েছে, তাদের ঘর, তাদের অর্থ, তাদের স্মৃতি, তাদের নিরাপত্তা, সবকিছু’—বলছিলেন মাহের।
গাজার পুলিশ বলেছে, বিমান হামলার মাত্র ৫ মিনিট আগে সতর্কতামূলক একটি রকেট হামলা চালানো হয়। এর ফলে বহু লোক বের হয়ে আসার সুযোগ পেলেও ১১ শিশু ও ৫ নারীসহ অন্তত ২২ জন আহত হয়েছে।
জাতিসংঘ জানিয়েছে, গত দেড় মাস ধরা চলা ইসরাইলি হামলায় অন্তত ১ লাখ মানুষের ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে। এ সময় অন্তত ১৭,০০০ ঘরবাড়ির হয় পুরোপুরি ধ্বংস বা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
এদিকে ইসরাইলে অভ্যন্তরে হামাসের রকেট হামলা অব্যাহত আছে। শনিবার দক্ষিণ ইসরাইলে শতাধিক রকেট ও মর্টার হামলার পর রোববার আরও অন্তত ১০ দফা হামলা চালিয়েছে হামাস।
অন্যদিকে শনিবার মধ্যরাত থেকে গাজায় অন্তত ২০ দফা বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইল। এতে অন্তত দু’জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।
সূত্র : গার্ডিয়ান, এপি