তারেক কুলাঙ্গারের শিরোমণি: মেনন

Menon

দৈনিকবার্তা-ঢাকা,২৬আগষ্ট: বাংলাদেশের রাজনীতিতে যদি কোনো কুলাঙ্গার থাকে তাহলে তারেক রহমান কুলাঙ্গারদের শিরমণি বলে মন্তব্য করেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন৷ তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিজেদের সম্পৃক্ততা ঢাকতেই বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান৷
তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরির চেষ্টা করছেন তারেক রহমান৷মঙ্গলবার সচিবালয়ে তার নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন৷সমপ্রতি ১৯৭৫ সালে মোশতাক সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে রাশেদ খান মেননের উপস্থিতি নিয়ে তারেক রহমান যে বক্তব্য দিয়েছে তার প্রতিবাদে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন৷মন্ত্রী বলেন, তারেক রহমান এ ধরনের মন্তব্য করে দেশের তারুণ্যের চেতনাবোধকে ধ্বংস করে দিয়েছেন৷
তিনি বলেন, সেদিন আমি ঢাকায় আত্মরক্ষার কাজে নিয়োজিত ছিলাম৷ রেডিওতে মোশতাক সরকারের শপথ গ্রহণের খবর শুনেছি৷ সেখানে আমার উপস্থিতি বিষয়ে যারা কথা বলে তাদের ইতিহাস সম্পর্কে সামান্যতম জ্ঞান নেই৷রাশেদ খান মেনন বলেন, আমার অগ্রজ মওলানা ভাসানী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের কাছ থেকে শিখেছি এ ধরনের বক্তব্যে কান দিতে নেই৷ কিন্তু তারেক রহমানেরএ ধরনের বক্তব্যে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে আজকে আমি বাধ্য হলাম৷
তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান নিজেই তার লেখায় বঙ্গবন্ধুকে মহান নেতা হিসেবে উল্লেখ করেছেন৷ কিন্তু তার ছেলে অর্বাচীনের মতো বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছে৷ মূলত ১৯৭১ সালে মা খালেদা জিয়ার যে ভূমিকা ছিল তা ধামাচাপা দিতে এসব কথা বলছে সে৷
মন্ত্রী বলেন, তারা মূলত নির্বাচনের বাস মিস করে সরকার তো দূরের কথা তাদের বিরোধীদলে বসার স্বপ্নও ধূলিস্মাত্‍ হয়ে যাওয়ায় এসব মন্তব্য করছে৷ একই সঙ্গে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা ও দেশে জঙ্গি কার্যকলাপের তাদের সম্পৃক্ততার মুখোশ উন্মোচিত হওয়ায় উল্টো পাল্টা বক্তব্য দিচ্ছে৷তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের পরে রেডিও ও টিভির রেকর্ড খুঁজলে পাওয়া যাবে আমরা মোশতাক সরকারের শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলাম না৷ এটা কল্পনাপ্রসূত কথা ছাড়া আর কিছেই নয়৷