অবৈধ সরকারের দেশের আমলে মানুষ নিরাপদ নয়: খালেদা

0
58

খালেদা জিয়া-Khaleda zia1

দৈনিকবার্তা নিউজ : টিভি উপস্থাপক শায়েখ কাজী নুরুল ইসলাম ফারুকীর মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বলেছেন, বর্তমান অবৈধ’ সরকারের আমলে দেশের মানুষ আর নিরাপদ নয়৷ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি এবং ক্ষমতাসীনদের হিংসাত্মক কার্যকলাপের কারণে দেশের আপামর জনসাধারণ আতঙ্কগ্রস্ত৷বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন৷

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে বিএনপির চেয়ারপারসন ফারুকী হত্যার নিন্দা জানান এবং খুনিদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবি জানান৷ বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি এবং ক্ষমতাসীনদের হিংসাত্মক কার্যকলাপের কারণে অপহরণ আর লাশের মিছিলের ভয়াবহ বাস্তবতায় জনসাধারণ সব সময় আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে দিন কাটাচ্ছে৷ ফারুকীকে হত্যার মধ্য দিয়ে আরেকবার প্রমাণ হলো, এই দেশে খুনের রাজত্ব কায়েম হয়েছে৷ তিনি অভিযোগ করেন, সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা আছে বলেই গুম,খুন ও অপহরণের ঘটনা ঘটিয়ে অপরাধীরা অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছে৷

সুপ্রিমকোর্ট জামে মসজিদের খতিব শাইখ নুরুল ইসলাম ফারুকী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া৷ খালেদা জিয়া বলেন, দেশবাসী এমন নৈরাজ্যকর থমথমে পরিবেশে বসবাস করছে, যেখানে পরিবার-পরিজন নিয়ে একজন দ্বীনি আলেমকেও দুষ্কৃতকারীদের হাতে জীবন হারাতে হয়৷ অবৈধ সরকারের সৃষ্ট কুশাসনের করাল গ্রাস থেকে কেবল দেশের রাজনৈতিক নেতা-কর্মীই নয়, দেশের সম্মানিত বিশিষ্টজনেরাও রেহাই পাচ্ছেন না৷ বিবৃতি খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে নৈরাজ্য ও দুঃশাসনের বিকল্প নেই৷ তাই সরকার এসব কর্মকাণ্ডকে প্রশ্রয় দিচ্ছে৷ এইভাবে হত্যালীলা চালিয়ে দেশব্যাপী রক্তপাত ঘটানোর জন্য সরকারকে একদিন চরম ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে৷

খালেদা জিয়া বলেন, দেশের বিশিষ্ট আলেম শায়েখ কাজী নুরুল ইসলাম ফারুকীকে হত্যার মধ্য দিয়ে আরেকবার প্রমাণিত হলো, দেশে খুনের রাজত্ম কায়েম হয়েছে৷ দেশবাসী এমন একটা নৈরাজ্যকর থমথমে পরিবেশে বসবাস করছে, যেখানে পরিবার-পরিজন নিয়ে একজন দ্বীনি আলেমকেও দুস্কৃতকারীদের হাতে জীবন হারাতে হয়৷ তিনি বলেন, অবৈধ’ সরকারের সৃষ্ট কুশাসনের করালগ্রাস থেকে কেবল দেশের রাজনৈতিক নেতাকর্মীই নয়, দেশের সম্মানিত বিশিষ্টজনরাও রেহাই পাচ্ছেন না৷ সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা আছে বলেই গুম, খুন ও অপহরণের ঘটনা ঘটিয়ে অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছে দুস্কৃতকারীরা৷ ফারুকীকে নির্মমভাবে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশের বিরাজমান খুনোখুনি ও রক্তারক্তির বিভত্‍স চিত্রটিই ফুটে উঠেছে৷

বিএনপির চেয়ারপার্সন অবিলম্বে শায়েখ কাজী নুরুল ইসলাম ফারুকীকে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান৷ একই সঙ্গে নিহত কাজী নুরুল ইসলাম ফারুকীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের সদস্য ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সহমর্মিতা জ্ঞাপন করেন৷ অপর এক বিবৃতিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গোটা দেশটা এখন নরকের জনপদ৷ অবনতিশীল আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির কারণে দেশের মানুষের নিরাপত্তা ও বেঁচে থাকা হুমকির মুখে৷ বর্তমান স্বৈরশাসকদের শাসনামল বিশ্বের ইতিহাসে সাদা পোশাক পরা কালো শাসনের অধ্যায় বলে পরিচিত হবে৷ এই মুহূর্তে আওয়ামী নির্যাতন নিপীড়ন ও দু:শাসনের কবল থেকে দেশকে উদ্ধার করতে না পারলে দেশের অস্তিত্বই বিলীন হয়ে যাবে৷