ফারুকীর হত্যাকান্ডে হেফাজতেকে দায়ী করা উদ্দেশ্যমূলক : আহমদ শফী

shafi

দৈনিকবার্তা -নিউজ : মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকী হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারপূর্বক দৃষ্টানত্মমূলক শাসত্মির দাবি জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও দারম্নল উলূম হাটহাজারীর মুহতামিম শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী৷ কতিপয় ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারম্নকীর হত্যাকান্ডের সাথে হেফাজতে ইসলামকে দায়ী করে যে-উদ্দেশ্যমূলক মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে- এর তীব্্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বৃহস্পতিবার প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আলস্নামা আহমদ শফী বলেন,হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক ও আত্মশুদ্ধিমূলক আধ্যাত্মিক সংগঠন৷

এই সংগঠন দেশে শানত্মি-শৃঙ্খলা, ন্যায় ও ইনসাফ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সর্বসত্মরের তৌহিদি জনতাকে সাথে নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে৷ আমরা হত্যা-সন্ত্রাস-খুন-রাহাজানি-জুলুম-নির্যাতনে বিশ্বাস করিনা৷ এটা ইসলামের মৌলিক আদর্শের পরিপন্থী৷ হেফাজতে ইসলাম মহানবী (স.)-এর সুন্নাহ প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে৷ এদেশের আলেম-ওলামা কোনো অন্যায় কাজ কিংবা সামাজিক স্থিতিশীলতা বিঘি্নত করার আইনবিরোধী কাজে জড়িত নয়৷ তাই মাওলানা ফারম্নকীর হত্যাকান্ডের সাথে হেফাজতে ইসলামকে জড়ানো উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং ধর্মপ্রাণ জনসাধারণের মাঝে বিভ্রানত্মি সৃষ্টির মাধ্যমে দেশে সংঘাতময় পরিস্থিতি তৈরি করার একটি সুপরিকল্পিত ষড়যন্ত্র৷ তিনি বলেন, একজন আলেম হত্যার ঘটনায় দেশের মানুষ গভীরভাবে মর্মাহত৷ সুতরাং এই নির্মম হত্যাকান্ডে জড়িতদের বের করে আইনের আওতায় না আনা পর্যনত্ম সংশিস্নষ্ট সবাইকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে৷ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কাউকে দায়ী করে প্রকৃত খুনিদের আড়াল করা মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ হবে না৷

আল্লামা শাহ আহমদ শফী আরো বলেন, একজন আলেমকে জবাই করে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা একটি বর্বর দৃষ্টানত্ম৷ এই জঘন্য হত্যাকান্ডের নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের নেই৷ আমি নিরপেৰ তদনত্মের মাধ্যমে মাওলানা ফারম্নকীর প্রকৃত হত্যাকারীদের খুঁজেবের করে দৃষ্টানত্মমূলক শাসত্মির ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের নিকটজোর দাবি জানাচ্ছি৷ তার শোক-সনত্মপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি৷ আলস্নামা শাহ আহমদ শফী বলেন, বাংলাদেশকে ধর্মহীন রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য ইসলামবিরোধী নাসত্মিক্যবাদীগোষ্ঠী দীর্ঘদিন থেকে নানা ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে৷ দেশের আলেম-ওলামা, মসজিদ-মাদ্রাসা-খানকা ও ইসলামী প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরম্নদ্ধে নানা অপবাদ দিয়ে কলঙ্কিত করার অপচেষ্টা নতুন নয়৷ এভাবে নতুন নতুন ইসু্য তৈরি করে আলেম-ওলামা ও দেশের জনসাধারণের মাঝে যে-সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ যুগ যুগ ধরে চলে আসছে- তাতে ফাটল ধরিয়ে আনত্মর্জাতিক সাম্রাজ্যবাদী চক্রের এজেন্ডা বাসত্মবায়নের সহায়ক পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে৷ এসব অশুভ চক্রানত্মের বিরম্নদ্ধে দেশের সর্বসত্মরের ওলামা-পীর মাশায়েখ ও নবীপ্রেমিক তৌহিদি জনতাকে সজাগ দৃষ্টি রাখার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান৷