নিজ বাড়ি থেকে দম্পতির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

82

01-09-14-Murder In City-3

দৈনিকবার্তা-ঢাকা,১সেপ্টেম্বর : রাজধানীর বনানীর ডিওএইচএস এলাকার একটি বাড়ি থেকে স্বামী-স্ত্রীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন ব্যবসায়ী আবদুর রব ও তাঁর স্ত্রী রোকসানা পারভীন। পুলিশ ও পরিবার জানিয়েছে, স্ত্রীকে খুন করার পর আবদুর রব নিজেকে গুলি করেন। আজ সোমবার রাতে বনানীর ডিওএইচএসের ৫ নম্বর রোডের নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ এই দম্পতির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, ইংলিশ মিডিয়ামে ক্লাস নাইনে পড়া নিহতের মেয়ে হানিফা বিকেলে খেলতে বাইরে গিয়েছিল। বাসা ফিরে সে দেখে, বিছানায় লাশ পড়ে আছে। মেয়ের মাধ্যমে পরিবার এবং পরে পুলিশ এ ঘটনা কথা জানতে পারে। ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ জানায়, মাথায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আবদুর রবের লাশ সোফায় এবং রোকসানা পারভীনের লাশ বিছানার ওপরে পড়েছিল। পুলিশ বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। পুলিশ বলেছে, ৫ নম্বর রোডের ৬০/এ নম্বরের ছয়তলা ভবনের ওই বাড়ির পঞ্চম তলায় আবদুর রব ও তাঁর স্ত্রী রোকসানা পারভীন থাকতেন। তাদেরন তিন ছেলে ও এক মেয়ে। এক ছেলে দাদির কাছে গুলশানে থাকেন। প্রতিবেশীরা সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ওই বাসায় গুলির আওয়াজ শুনতে পান।

ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (অপরাধ ও অপারেশন) মীর রেজাউল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ছাড়া র্যাব ও পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত মীর রেজাউল আলম দৈনিকবার্তা কে বলেন, আবদুর রব ও রোকসানা পারভীন দম্পতির সন্তানেরা এ সময় বাসায় কেউ ছিলেন না। বাসায় একজন নারী গৃহকর্মী ছিলেন। বাসা থেকে পিস্তলের গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়াও কিছু আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। নিহতের ছেলে নাফিস আহমেদ দৈনিকবার্তা কে বলেন, ব্যবসায়ে হতাশার কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। একটা জমি বিক্রি নিয়ে মায়ের সঙ্গে বাবার দ্বন্দ্ব চলছিল। গৃহকর্মীর কাছ থেকে তারা জেনেছেন, আব্দুর রব স্ত্রীকে গুলি করার পর নিজেকে গুলি করেন।

পুলিশের গুলশান বিভাগে উপকমিশনার লুত্ফুল কবীর দৈনিকবার্তা কে বলেন, নিহতের বাসা থেকে পিস্তলের দুটো গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। লাইন্সেস করা পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়েছে।

01-09-14-Murder In City-4