লজিং মাস্টার ছিলেন মন্ত্রী মুস্তফা কামাল

kamal20140831194927                                                           পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

দৈনিকবার্তা অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: অর্থাভাবে স্কুলের বেতন পরিশোধ করতে পারতেন না। তাই সপ্তম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত চার বছরে তিন বার স্কুল থেকে নাম কেটে দিয়েছিলেন শিক্ষকরা। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় বেতন পরিশোধ করেছেন। এমনকি ছাত্রাবস্থায় লজিং মাস্টারও ছিলেন।
বলা হচ্ছে, বাংলাদেশ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীদের একজন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের কথা। সবার কাছে লোটাস কামাল নামেই একডাকে পরিচিত। মন্ত্রিত্বের পাশাপাশি প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বর্তমানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন তিনি।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ বাংলাদেশ ব্যাংক শাখার উদ্যোগে রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মুস্তফা কামাল নিজের অতীত স্মরণ করতে গিয়ে এসব তথ্য জানান।
মুস্তফা কামাল বলেন, ‘এখানে উপস্থিত বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানের চেয়েও আমার অবস্থা খারাপ ছিল। তিনি অনেক কষ্ট করে আজ বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গর্ভনর। আর আমি লজিং মাস্টার থেকে লেখাপড়া করে আজ এই অবস্থানে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কারণে এগুলো সম্ভব হয়েছে। তিনি স্বাধীনতার ডাক না দিলে লেখাপড়া করা সম্ভব ছিল না।’

তিনি আরো বলেন, ‘গত ছয় বছরে দেশের অর্থনীতির বেশ অগ্রগতি হয়েছে। আগামী পাঁচ বছরে অর্থনীতি পাল্টে দেব। বাংলাদেশ এগোবেই।’

বঙ্গবন্ধু পরিষদ বাংলাদেশ ব্যাংক শাখার সভাপতি মো. নেছার আহম্মদ ভূঁঞার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন গভর্নর ড. আতিউর রহমান ও ডেপুটি গভর্নর নাজনীন সুলতানা।