৭৭ ঘন্টা পর নবনির্মিত মাওয়া রো রো ফেরীঘাট চালু

ROW Row Feri Ghat

দৈনিকবার্তা-মুন্সীগঞ্জ, ৫সেপ্টেম্বর: অবশেষে ৭৭ঘন্টা পর মাওয়া রো রো ফেরীঘাট পুনরায় সচল হয়েছে৷ বৃহস্পতিবার রাতের দিকে ফেরী কাকলী আনলোড করে চালু করা হয়েছে নবনির্মিত ৩ নং রো রো ফেরীঘাটটি ৷তবে পদ্মায় ভেঙে যাওয়া ঘাটের সাথেই এ রো রো ঘাটটি তৈরী করে সচল করা হয়েছে৷ এর আগে পদ্মার আকষ্মিক ভাঙনে মাওয়া নতুন রো রো পন্টুনের র্যামসহ ফেরীঘাট বিলীন হওয়ার প্রায় ২২ ঘন্টা পর ঐ স্থানে ঘাট স্থানানত্মরের সিদ্ধানত্ম নেয়া হয়েছিল৷

বিআইডবি্লউটিএর নির্বাহী প্রকৌশলী হারুন-অর-রশীদ জানান,প্রথম দফায় ভেঙে যাওয়া রো রো ঘাটের ১০০ গজ ডাউনে (নীচে) পুনরায় নতুন রো রো ঘাটটি তৈরীর মাধ্যমে চালু করা হলো ৷এটি তৈরী করতে সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তা ও ঠিকাদারের শ্রমিকদের নিরবিচ্ছিন্নভাবে রাতদিন সময় দিতে হয়েছে ৷পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘাট দিয়ে যানবাহন চলাচল করছে বলে তিনি আরো জানান৷

এদিকে গত ৩দিন বন্ধ থাকার পর গতকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকে রো রো ফেরি বীরশ্রেষ্ট রম্নহুল আমিন, আমানত শাহ ও শাহ আলীসহ ৩টি রো রো ফেরী পুনরায় নৌরম্নটে চলাচল শুরু করেছে৷ এরই মধ্যে ফেরীস্বল্পতার কারণে চাঁদপুর শরীয়তপুর নৌরম্নট থেকে আনা আরো কে টাইপ ফেরী কলমিলতা মাওয়া ফেরী বহরে যোগ করা হয়৷

উল্লেখ্য, গত ১৯আগষ্ট প্রথম দফায় মাওয়ার নতুন রো রো ফেরীঘাট এলাকায় ১৫০ফুট এলাকা সংযোগ সড়কের রাসত্মাসহ মাওয়া রো রো ঘাটটি পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়৷ পরবর্তীতে ২য় দফায় সোমবার দেড়টার দিকে অস্বাভাবিকহারে পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতের কারণে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়ায় সদ্য স্থানানত্মরিত নতুন রো রো ফেরিঘাটটি ও লঞ্চঘাট এলাকার ১৫০ ফুট এলাকাসহ রো রো পন্টুনের র্যামের নীচের মাটি সরে গিয়ে পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়৷ এতে পুনরায় রো রো ফেরি সার্ভিস বন্ধ হয়ে যায়৷পাশাপাশি লঞ্চঘাটের পন্টুনের যাত্রী ওঠানামার দুইটি সিঁড়ির জায়গাসহ ৭-৮টি দোকান পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়৷