সাধারণ মানুষ নয়,আইন ভাঙ্গে অসাধারণরা: কাদের

0
42

obaidul Kaderদৈনিকবার্তা-ঢাকা, ৬সেপ্টেম্বর: সাধারণ মানুষ নয়,বাংলাদেশে অসাধারণ ব্যক্তিরা আইন লঙ্ঘন করে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের৷শনিবার দুপুরে রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে ঢাকা মোটরবাইক শো ২০১৪’ উপলক্ষে আয়োজিত মোটরবাইক শোভাযাত্রার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন৷অনুষ্ঠানটি বেলা ১২টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও মন্ত্রীর আসতে দেড়টা বেড়ে যায়৷

এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন,সময়মতো অনুষ্ঠানে আসতে চেয়েছিলাম৷ প্রচণ্ড যানজট থাকায় দেড় কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে অনুষ্ঠানে এসেছি৷ ট্রাফিক পুলিশ উল্টো পথে গাড়ি চালাতে বললেও শুনিনি৷ কারণ, আইন মেনে আমি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই৷

মন্ত্রী বলেন, অসাধারণ লোকেরা আইন ভঙ্গ করে, সাধারণ মানুষ করে না৷এখন সংসদ সদস্য লেখা স্টিকার ব্যবহার করে ভুয়া সংসদ সড়কে চলে,ভুয়া সাংবাদিক ও ভুয়া ডাক্তারও রয়েছে৷ তারা যা নন তা গড়িতে লিখে অপরাধ করে চলছে৷এমনটি যেন আর না হতে পারে সেজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করবো৷ওবায়দুল কাদের বলেন, শিক্ষিত,অসাধারণ ও ভিআইপিদের আইন মেনে চলতে হবে৷ অ্যাটিচুড ইজ অ্যা লিটল থিং বাট ইট মেকস এ হিউজ ডিসটেন্স৷

মোটর শোভাযাত্রার আয়োজক বাংলাদেশ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেসের(বিডিইএমএস) অপারেশন কো অর্ডিনেটর স্টিফেন এস চিসিম জানান, আগামী ১৮ থেকে ২১সেপ্টেম্বর আগারগাঁওয়ের বাণিজ্য মেলার মাঠে ঢাকা মোটরবাইক শো অনুষ্ঠিত হবে৷

এ উপলক্ষে ৬, ১৩ ও ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মোটর শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান তিনি৷শনিবারের শোভাযাত্রায় একটি বড় ট্রাকে বিভিন্ন ব্রান্ডের মোটরবাইক নিয়ে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়৷শ্যামলী,কল্যাণপুর, টেকনিক্যাল মোড়, মিরপুর ও শেওড়াপাড়া ঘুরে আবারো মানিকমিয়া অ্যাভিনিউয়ে এসে তা শেষ হয়৷

রাজধানীতে অসহনীয় যানজটে আটকা পড়ে তপ্ত রোদের মধ্যে দেড় কিলোমিটার হেঁটে অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি৷ অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর জন্য ফুলের মালা প্রস্তুত রাখা হলেও ক্লান্ত মন্ত্রীর হাতে তখন তুলে দেওয়া হয় পানির বোতল৷ হাঁপাতে হাঁপাতে মন্ত্রী তখন কোমল পানীয় পান করে শরীরে স্বস্তি আনেন৷

দেড় কিলোমিটার পায়ে হেঁটে সংসদ ভবন সড়কে অনুষ্ঠানস্থলে আসার পর মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, রাস্তায় এত বেশি যানজট যে পুলিশ তাকে রং সাইডে চলে আসতে বললে মন্ত্রী তা মানেন নি৷ এরপর গাড়ি থেকে নেমে দেড় কিলোমিটার হেঁটে সংসদ ভবনের সামনে সড়কে এসে পৌঁছান৷

মন্ত্রী বলেন, রাজধানীর সড়কে ভিআইপি লোকেরা আইন ভঙ্গ করে রং সাইডে চলেন৷ কিন্তু সাধারণ লোকেরা ঠিকই আইন মেনে চলে৷ওবায়দুল কাদের ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতীয় সংসদের স্টিকার লাগিয়ে কত ব্যক্তি ভুয়া সাজে৷ কিন্তু তারা সংসদ সদস্যের কেউ নন৷ এরকম স্টিকার লাগিয়ে রং সাইডে তারা রাস্তা পার হয়৷

মন্ত্রী উল্লেখ করে বলেন,শুধু জাতীয় সংসদের স্টিকার নয় রাস্তায় ভুয়া সাংবাদিক ও ভুয়া চিকিত্‍সকদের অনেক গাড়ি দেখা যায়৷ কিন্তু ভেতরে দেখা যায় কোনো সাংবাদিক নেই৷ এসব ব্যক্তিরা সাংবাদিক স্টিকার লাগায় শুধু রং সাইডে রাস্তা পারাপারের জন্য৷মন্ত্রী বলেন, আমরা যারা ভিআইপি তাদের সবার আগে নিয়ম মানতে হবে৷আমাদের আচরণগত সমস্যার পরিবর্তন ঘটাতে হবে৷হেলমেটবিহীন মোটরবাইক না এবং মোটরবাইক চালানো অবস্থায় ফোনে কথা বলা না-এই দুটি বিষয় এই মোটরবাইক শো ও র্যালি থেকে রাজধানীবাসীকে সচেতন করে তোলা হবে বলে জানান আয়োজক বাংলাদেশ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস এর সিইও সৈয়দ রাজু আহমেদ৷