কাশ্মির সীমান্তে পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণে নিহত ২

কাশ্মির সীমান্তে পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণে নিহত ২

দৈনিকবার্তা-ঢাকা, ৩ জানুয়ারি:  কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর সীমান্তরক্ষীদের পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণে পাকিস্তানি এক কিশোরী ও ভারতীয় এক নারী নিহত হয়েছেন৷শনিবার এসব খবর জানিয়েছে দ্য ডন ও প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া৷ পাকিস্তানের শিয়ালকোটের শাকারগারহ্ সেক্টরে চেনাব রেঞ্জার্স ও ভারতীয় বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) মধ্যে গুলিবিনিময়ে শিয়ালকোটের আশি নগর এলাকার ১৪ বছরের কিশোরী সামিরা নিহত হয়েছেন৷ গোলাগুলিতে একই সেক্টরের ভিকা চক এলাকায় মুরসালিন নামের আট বছরের এক বালক আহত হয়েছেন৷

সামিরার মৃতু্যর পর ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং আতঙ্কিত লোকজন নিরাপদ স্থানে সরে যেতে শুরু করেছেন বলে জানিয়েছে চেনাব রেঞ্জার্সের সূত্রগুলো৷অপরদিকে, জম্মু ও কাশ্মিরের কাঠুয়া ও সাম্বা জেলায় পাকিস্তানি সীমান্তরক্ষীদের ব্যাপক মর্টার গোলাবর্ষণে সাম্বার মাঙ্গু চক গ্রামে তোরি দেবী নামের এক নারী নিহত হয়েছেন, জানিয়েছেন সাম্বার জ্যেষ্ঠ পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট (এসএসপি) অনিল মাগোত্রা৷ এ ঘটনায় একই গ্রামের আরো চারজন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি৷ পাকিস্তানি গোলার আঘাতে বেশ কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ ও বেশ কিছু গৃহপালিত পশুও মারা গেছে বলে জানিয়েছেন মাগোত্রা৷

কাঠুয়া জেলার ডেপুটি কমিশনার শহিদ ইকবাল জানিয়েছেন, পাকিস্তানি গোলায় কাঠুয়ার নাউচক গ্রামে দুই নারীসহ চারজন আহত হয়েছেন৷ সাম্বা ও কাঠুয়া জেলার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাকিস্তানি গোলার ভয়ে সীমান্ত অঞ্চলের আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যাচ্ছেন৷ জেলা দুটির সীমান্তবর্তী ক্ষুদ্র কয়েকটি গ্রাম থেকে এক হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তারা৷নতুন বছর শুরুর আগের দিন থেকে কাশ্মির সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানি সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়৷পাকিস্তানিদের গুলিতে এক বিএসএফ জওয়ানসহ দুই ভারতীয় নিহত হওয়ার পর ভারতীয় পক্ষের পাল্টা গুলিবর্ষণে পাঁচ পাকিস্তানি রেঞ্জার্স সদস্য নিহত হওয়ার পর সীমান্ত পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে৷