পুরস্কার প্রধানমন্ত্রীকে উত্‍সর্গ করতে চাই: গভর্নর

pm_sm1_268644496

দৈনিকবার্তা-ঢাকা, ৬ জানুয়ারি: ব্যাংকিং খাতে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি পুরস্কার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উত্‍সর্গ করতে চান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান৷মঙ্গলবার দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংক অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান৷

তিনি বলেন, সকলের সহযোগিতা না থাকলে এ পুরস্কার পাওয়া সম্ভব হতো না৷ এই পুরস্কার উত্‍সর্গ করতে চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে৷ তাছাড়া স্বাধীনতা যুদ্ধের মুক্তিযোদ্ধা ও সেসব নারীদের প্রতি যাদের সম্ভ্রমের বিনিময়ে এই স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে৷ তবে আমি উল্লেখ করতে চাই এই পুরস্কার পাওয়ার ক্ষেত্রে গ্রিন ব্যাংকিং ও ফাইন্যান্সিসিয়াল ইনক্লুশন বিভাগ ৫০ ভাগ ভূমিকা রেখেছে৷

বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের নতুন এ পুরস্কার প্রাপ্তি উপলক্ষে বিস্তারিত জানাতেই সংবাদ সম্মেলনের মতো এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়৷বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ম মাহফুজুর রহমান সঞ্চালনায় এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের ডেপুটি গভনর্র নাজনীন সুলতানা, প্রধান অর্থনীতিবিদ ড. বিরূপাক্ষ পাল৷

নাজনীন সুলতানা বলেন, এই পুরস্কারের জন্য আমরা সবাই গর্বিত৷ ব্যাংকিং সেক্টরের ডিজিটালাইজেশনের জন্য ড. আতিউর রহমান যে ভূমিকা রেখেছেন তা বিশ্বব্যাপী সমাদৃত হয়েছে৷ তাছাড়া নারীর ক্ষমতায়নে মাননীয় গভর্নরের নেতৃত্ব গ্রামঞ্চলের নারীদের পর্যন্ত আত্মনির্ভরশীল করেছে৷ এই পুরস্কার কেবল বাংলাদেশ ব্যাংকের জন্য সম্মান বয়ে আনেনি৷ এটি পুরো দেশকে পৃথিবীর সামনে সমাদৃত করেছে৷

ড. বিরূপাক্ষ পাল বলেন,বাংলাদেশে সবুজ ব্যাংকিং এ ভূমিকা রাখায় গভর্নর বিশ্বব্যাপী সুনাম কুড়িয়েছেন৷বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আউটস্ট্যান্ডিং পারফরমেন্স করছেন বলেই মনে করেন আন্তর্জাতিক অর্থনীতিবিদরা৷

উল্লেখ্য, লন্ডনের প্রভাবশালী দ্য ফাইন্যান্সিয়াল টাইমসের ব্যাংক ও অর্থনীতিবিষয়ক ম্যাগাজিন দ্য ব্যাংকার সোমবার এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল থেকে সেন্ট্রাল ব্যাংক গভর্নর অব দ্য ইয়ার-২০১৫’ ঘোষণা করে৷ এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি পেয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান৷

বিশ্ব মন্দার মধ্যেও বাংলাদেশে স্থিতিশীল অর্থনীতি বজায় রাখা, অন্তর্ভুক্তিমূলক ব্যাংকিং, গ্রিন ব্যাংকিং এবং সিএসআর(সামাজিক দায়বদ্ধতা) কার্যক্রমের মাধ্যমে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বিশেষ অবদান রাখার জন্যই আতিউরকে এই স্বীকৃতি দেওয়া হয়৷

একইসঙ্গে ইউরোপ, আমেরিকা, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকা অঞ্চলের সেরা গভর্নরদের নামও ঘোষণা করা হয়৷ আতিউর রহমান এর আগে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর কল্যাণে বিশেষ অবদানের জন্য ফিলিপিন্সের গুসি শান্তি পুরস্কার পেয়েছেন৷প্রবৃদ্ধি ও সামষ্টিক অর্থনীতির স্থিতিশীলতার পাশাপাশি সামাজিক ও পরিবেশবান্ধব উদ্যোগে পুঁজির প্রবাহ বাড়ানোর স্বীকৃতিস্বরূপ এশীয়-প্রশানত্ম মহাসাগরীয় অঞ্চলের সেরা গভর্নর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড.আতিউর রহমান৷

লন্ডনভিত্তিক ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস গ্রম্নপের অর্থবিষয়ক ম্যাগাজিন ‘দি ব্যাংকার এশীয়-প্রশানত্ম মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে তাকে ২০১৫ সালের সেন্ট্রাল ব্যাংকার অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করে৷এতে বলা হয়, প্রবৃদ্ধি বা সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার সঙ্গে কোনো আপস না করে পরিবেশবান্ধব ও সমাজসচেতন উন্নয়নে পুঁজি সরবরাহ করে দৃষ্টানত্ম স্থাপন করেছেন কেন্দ্রিয় ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমান৷

আতিউর রহমানের এই স্বীকৃতি সম্পর্কে বিসত্মারিত তুলে ধরতে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে৷ এতে গভর্নর তার অনুভূতি প্রকাশ করেন৷এ সময় তিনি বলেন, এই অর্জন আমার একার নয়৷ পুরো আর্থিক খাতের সম্মিলিত প্রয়াসে দেশের অর্থনীতিতে যে স্থিতিশীলতা তৈরি হয়েছে, এটি তারই স্বীকৃতি৷গভর্নর বলেন, অনত্মর্ভুক্তিমূলক অর্থায়ন, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের সিএসআর কার্মকান্ড এবং সবুজ অর্থায়ন এই ত্রিধারার নতুন উদ্যোগ মিলে অর্থনীতিতে যে স্থিতিশীলতা তৈরি হয়েছে, তা কেবলমাত্র পুরো আর্থিক সবার সম্মিলিত প্রয়াসের কারনে সম্ভব হয়েছে৷

এদিকে, এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সেরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকার নির্বাচিত হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ মঙ্গলবার এক অভিনন্দন বার্তায় প্রধানমন্ত্রী কৃষিবান্ধব ও গ্রিন ব্যাংকিং ব্যবস্থা প্রবর্তন, সামষ্টিক অর্থনীতি ও সার্বিক ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা পুনঃপ্রতিষ্ঠায় আতিউরের বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেন৷লন্ডনভিত্তিক প্রভাবশালী পত্রিকা দি ফাইন্যান্সিয়াল টাইমসের ব্যাংক ও অর্থনীতি বিষয়ক ম্যাগাজিন দ্য ব্যাংকার’সোমবার এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল থেকে আতিউর রহমানকে ২০১৫ সালের সেন্ট্রাল ব্যাংকার অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করে৷ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি দায়িত্বে বহাল করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এই পুরস্কার সরকার প্রধানকে উত্‍সর্গ করেন গভর্নর৷