নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ : খালেদা জিয়া

ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া

দৈনিকবার্তা-ঢাকা ১১ জানুয়ারি:  আওয়ামী লীগ এর প্রতি উদ্দেশ্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন,“নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচির অবসান হবে না। রোববার রাত পৌনে ৮টার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে সাক্ষাত শেষে আন্দোলনের বিষয়ে খালেদা জিয়ার বক্তব্য তুলে ধরে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া। দলের স্থায়ী কমিটির ৩ জন সদস্য খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে গেলে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে গৃহবন্দি নয় বন্দি করে রাখা হয়েছে। যে পুলিশ তাকে নিরাপত্তা দিচ্ছে সেই পুলিশই বিএনপি চেয়ারপারসন এর প্রতি নিরাপদ স্থান থেকে পিপার-স্প্রে নিক্ষেপ করেছে। তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার রক্ষার জন্য জনগণকে তার পাশে চেয়েছেন। অবরোধ কতদিন চলবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রফিকুল বলেন, “সকল দলের অংশগ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি না পূরণ হওয়া পর্যন্ত এই আন্দোলন চলবে। আমরা বারবার সরকারকে আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু সরকার তা নিয়ে ব্যঙ্গ করেছে। তবুও আমরা অপেক্ষায় আছি- সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে। তারা আলোচনার উদ্যোগ নেবে। অন্যথায় আন্দোলন চলবে।”

খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে বর্তমানে সুস্থ আছেন বলেও জানান বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ কি আদৌ ফোন করে খালেদা জিয়ার অসুস্থতার খোঁজ নিয়েছেন? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “অমিত শাহর সঙ্গে নেত্রীর কথা হয়েছে।” খালেদা জিয়া যেভাবে আছেন সেটাকে কি গৃহবন্দি বলা যায়, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবারে রফিকুল বলেন, “এটা গৃহবন্দি নয়, এটা বন্দি। তিনি (খালেদা) বন্দি রয়েছেন।” দীর্ঘ নয় দিন পর এই প্রথম ‘অবরুদ্ধ’ নেত্রী খালেদা জিয়াকে দেখতে যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির তিন সদস্য।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে দেখা করতে আসেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক সেনা প্রধান লে. জে. (অব) মাহবুবুর রহমান, এরপর আসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া।