বিএনপির আন্দোলনের সঙ্গে জনগণের কোনো সম্পৃক্ততা নেই : কামরুল

খাদ্যমন্ত্রী-কামরুল-ইসলাম

দৈনিকবার্তা-ঢাকা, ১১ জানুয়ারি: বিএনপি একটি মিথ্যাচারী দল বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম৷রোববার বিকাল ৪টায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বর্ধিত সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন৷

অ্যড. কামরুল বলেন, দেশে যখন বিশ্ব ইজতেমা চলছে তখন বিএনপি টোকাই ভাড়া করে অবরোধ দিয়ে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে৷ জনগণের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলেই তারা অনির্দিষ্টকালের অবরোধ দিচ্ছে৷ এমনকি বিশ্ব ইজতেমা পর্যন্ত ছাড় দেয়নি৷

তিনি বলেন,বিএনপি আসলেই একটি মিথ্যাচারের দল৷ বিজেপি প্রধান অমিত শাহ’র সঙ্গে নাকি খালেদা জিয়ার কথা হয়েছে৷ কংগ্রেসম্যানরা নাকি তাদের জন্য বিবৃতিতে দিয়েছে৷ অমিত শাহ খালেদা জিয়ার সঙ্গে কোনো কথাই বলেন নি৷ মন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার মিথ্যাচারের জন্য আমাদের দেশের সুনাম নষ্ট হয়েছে৷ ওনার (খালেদা জিয়া) লজ্জা না থাকতে পারে, তবে আমরা রাজনীতিবিদ হিসেবে লজ্জা পেয়েছি৷

কামরুল বলেন, খালেদা জিয়া মিথ্যার ওপর দাঁড়িয়ে আছেন৷ আগামী এক সপ্তাহ যদি অবরোধ তাকে তার অবস্থা শোচনীয় হতে বাধ্য৷ সাধারণ জনগণ তাদের ওপর ক্ষেপে আছে৷ কারণ যেভাবে তারা গাড়ি ভাঙচুর ও জ্বালাও পোড়াও করছে সাধারণ জনগণ তাদের ধাওয়া করবে৷

বর্ধিত সভায় অবরোধ কর্মসূচির কঠোর সমালোচনা করে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণ-দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, এক’শ টি দেশের মুসলি্ল বিশ্ব ইজতেমায় ইবাদতের জন্য এসেছেন৷ কিন্তু খালেদা জিয়া অবরোধের নামে ন্যাক্কার জনক ঘটনা ঘটিয়েছেন৷

তিনি খালেদা জিয়াকে বুয়া, পলস্ আখ্যা দিয়ে বলেন, জনগণ তাকে (খালেদা) যে নামে ডাকবেন এখন সেটাই প্রযোজ্য হবে৷ মন্ত্রী বলেন, বিজেপি প্রধানের সঙ্গে ওনার (খালেদা) কথা হয়েছে বলে তিনি কি বুঝাতে চান৷ বিএনপিকে কি বিজেপি ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে?

তিনি বলেন, খালেদা মিথ্যাচার করে গোটা দুনিয়ার কাছে নিকৃষ্ট প্রাণী হিসেবে পরিগণিত হয়েছেন৷ কেউ তাকে বিশ্বাস করে না৷এ সময় তিনি আইনজীবীদের স্টাডি করার পরামর্শ দিয়ে মায়া বলেন, মিথ্যাচারের জন্য খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা হওয়া উচিত৷ এটাই হবে উপযুক্ত জবাব৷

বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক আব্দুল হক সবুজ প্রমুখ৷