নাশকতা প্রতিরোধ সারা দেশে কমিটি করবে ১৪ দল

99999nasimmmmm1

দৈনিকবার্তা-ঢাকা, ১৩ জানুয়ারি: অবরোধের নামে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িতদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দিতে সারা দেশে পাড়া-মহল্লায় নাশকতা প্রতিরোধ কমিটি’ করার ঘোষণা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ১৪ দল৷মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম এ কথা জানান৷

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হবে৷ এই কমিটি জনগণকে সকল নৈরাজ্যকারীদের বিরম্নদ্ধে সচেতন করতে উদ্বুদ্ধ করবে৷ কমিটির সদস্যরা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করবে৷

সকল সন্ত্রাসী কর্মকান্ডমোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো কঠোর হওয়ার আহবান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের এক বিন্দু ছাড় দেওয়া যাবে না৷ সন্ত্রাসীদের ছাড় দেবার কোন প্রশ্নই আসে না৷ যারা মিথ্যাচার করে তাদেরও কোন ছাড় দেওয়া যাবে না৷অবরোধের নামে চোরাগোপ্তা হামলার জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে দায়ী করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চোরাগোপ্তা হামলার জন্য উনি দায়ী৷ তার নির্দেশেই এই হামলা চালাচ্ছে জামায়াত শিবিরের সন্ত্রাসীরা৷ এই সন্ত্রাসীদের টাকা দিয়ে মাঠে নামানো হয়েছে৷ তিনি জীবনত্ম মানুষকে পুড়িয়ে মারছে৷

তিনি বলেন, অবরম্নদ্ধ থাকার নাটক করে বেগম খালেদা জিয়া জঙ্গিদের মাঠে নামিয়েছেন৷ জামায়াত-শিবিরের ক্যাডারদের দিয়ে চোড়া গোপ্তা হামলা করাচ্ছেন৷ এটা কোন আন্দোলন হল? এটা একটা কাপুরম্নষোচিত্ত আন্দোলন৷ আসলে বেগম জিয়া জামায়াতের নেতাদের রৰার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে৷

অবরোধ-হরতালের মতো ধ্বংসাত্বক কর্মসূচি দিয়ে যারা দেশের ক্ষতি করছে তাদের কোনো গণতান্ত্রিক অধিকার থাকতে পারে না জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর এই সদস্য বলেন, বিএনপিকে বলব, সন্ত্রাস বাদ দেন৷ মিথ্যাচারের ভাঙা ক্যাসেট বাজানো বাদ দেন৷ আমরা প্রশাসনকে আরও কঠোর হতে বলব৷ সন্ত্রাসীদের আরও কঠোরভাবে মোকাবেলা করতে হবে৷তিনি বলেন, দেশ স্বাভাবিক রয়েছে, কিন্তু মানুষের মধ্যে কিছুটা আতঙ্ক বিরাজ করছে৷ সন্ত্রাসীদের কোনো দল নেই৷ খালেদার সৈনিকরা তো মাঠে নেই৷ কিন্তু তার সন্ত্রাসীরা মাঠে রয়েছে৷ এ জন্যই তারা চোরাগোপ্তা হামলা করছে৷

এর আগে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহবায়ক ডা. ওয়াজেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাসদের কার্যকরী সভাপতি মাঈনুদ্দীন খান বাদল এমপি, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের সভাপতি নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী এমপি, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক নুরম্নর রহমান সেলিম, ন্যাপ নেতা ইসমাইল হোসেন, জাতীয় পাটির্র (জেপি) মহাসচিব শেখ শহিদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এনামুল হক শামীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন৷