2015-10-13_6_335417

দৈনিকবার্তা-ঢাকা, ১৩ অক্টোবর ২০১৫: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের মত ক্রানত্মিকালে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, ত্রাণ তত্‍পরতা ও উদ্ধার অভিযান অব্যহত রাখতে সরকার ন্যাশনাল ইমারজেন্সী অপারেশন সেন্টার নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে৷ তিনি বলন, এই সেন্টার হবে দেশে দুর্যোগ ব্যবস্থপনায় সেন্টার অব এঙ্েিলন্স৷ জাপান সরকারের সহায়তায় এটি নির্মাণ করা হবে৷ ইতোমধ্যে জাপান সরকারের কাছে এ বিষয়ে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে৷

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মঙ্গলবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আনত্মর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস-২০১৫ এর উদ্বোধনী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন৷ এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য জ্ঞানই জীবন৷ সেন্দাই ফ্রেমওয়ার্কে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় লোকায়ত জ্ঞানকে প্রাধান্য দেয়ার প্রেৰিতে এ প্রতিপাদ্য নির্ধারন করা হয়েছে৷

মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শাহ্ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সংক্রানত্ম সংসদীয় কমিটির সভাপতি ধীরেন্দ্র দেবনাথ সম্ভু, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রিয়াজ আহমেদ, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স অদিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহমদ খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন৷দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ প্রথাগত ত্রাণ তত্‍পরতার পরিবর্তে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় অধিক মনোযোগ দিয়েছে৷ এর ফলে একই মাত্রার দুর্যোগে অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি অনেক কম হচ্ছে৷ প্রাকৃতিক দুর্যোগের পূর্বাপরে করণীয় সম্পর্কিত জ্ঞান আহরণ করে কষ্টার্জিত জানমালের সুরৰা নিশ্চিত করতে তিনি দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান৷

এরপরে মন্ত্রী এ দিবস উপলৰে আয়োজিত চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করেন৷ এছাড়াও তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার সরঞ্জামাদী এবং প্রযুক্তি নিয়ে আয়োজিত মেলাও পরিদর্শন করেন৷ সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সমন্বিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রোগ্রামের জাতীয় প্রকল্প পরিচালক মোঃ আব্দুল কাইয়ুম৷