ইরাক-ইরানে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩২

0
90

ইরাক ও ইরানের সীমান্তবর্তী এলাকায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে প্রাণহানির সংখ্যা বাড়ছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩২ জনে। এ ছাড়া অন্তত চার হাজার মানুষ আহত হয়েছেন। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জানানো হয়েছে, ৭ দশমিক ৩ মাত্রার এই ভূমিকম্পটি দেশের উত্তরাঞ্চলের কারমানশাহ প্রদেশের ইরাকের সীমান্ত এলাকায় সংঘটিত হয়েছে। ইরাকের রাজধানী বাগদাদ, প্রতিবেশী কুয়েত ও ইসরায়েলেও তা অনুভূত হয়েছে।

ইরানের কারমানশাহ প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর মুজতবা নিক্কারদার বিবিসিকে বলেন, ‘এখনো অনেকেই ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছেন। মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।’ সীমান্তের ১৫ কিলোমিটার দূরের শহর শারপুল-ই-জাহাব শহরে অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছেন বলেও জানান ডেপুটি গভর্নর। তিনি আরো জানান, এই এলাকাটিই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভূমিকম্পে ইরাকে সাত জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

রাতের বেলা এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ হওয়ায় দুর্গত এলাকায় হেলিকপ্টার উড়ে যেতে পারেনি। অনেক স্থানে সড়কপথ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ফলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সও যেতে সমস্যা হচ্ছে। বিশেষত, যেসব গ্রাম কিছুটা প্রত্যন্ত অঞ্চলে, সেখানে দুর্গত লোকজনকে উদ্ধার ও সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে শঙ্কা তৈরি হয়েছে বলেও রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবদলরেজা রাহমানি ফজলি।

ভূমিকম্পের পর পরই লোকজন আতঙ্কে বাড়িঘর থেকে ছুটে বেরিয়ে রাস্তায় নেমে আসেন। ইরানের কমপক্ষে আটটি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ ও টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ভূমিকম্পের পর ভূমিধসের কারণে উদ্ধারকাজও ব্যাহত হচ্ছে। এদিকে, ইরানের একটি সহায়তাকারী সংস্থা জানায়, ভূমিকম্পে বাস্তুহারা হয়েছেন কমপক্ষে সাত হাজার মানুষ। তাঁদের জরুরি ভিত্তিতে পুনর্বাসনের প্রয়োজন।