সাবেক রাষ্ট্রদূত এম মারুফ জামানের সন্ধানে তদন্ত চালাচ্ছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট

0
90

সাবেক রাষ্ট্রদূত এম মারুফ জামানের সন্ধান জানতে থানা পুলিশের পাশাপাশি তদন্ত করছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। বুধবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে প্রশ্নের জবাবে একথা জানান কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। গত সোমবার সন্ধ্যা থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন দাবি করে ধানমণ্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি করে পরিবার। এই ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে মারুফ জামানকে বহনকারী গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পরিবার বলছে বেলজিয়াম ফেরত মেয়েকে বিমানবন্দর থেকে আনতে সোমবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হন মারুফ জামান। তবে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও তিনি বিমানবন্দরে না যাওয়ায় চাচার সঙ্গে বাসায় ফেরেন তার মেয়ে। রাতভর খোঁজাখুঁজি করে কোনো সন্ধান না পাওয়ায় মঙ্গলবার থানায় জিডি করে পরিবার।

মারুফ জামানের স্বজনদের দাবি, বের হওয়ার আধাঘণ্টা পর অপরিচিত নম্বর থেকে বাসায় ফোন করে, বাসায় কেউ গেলে তার কাছে নিজের ব্যবহৃত কম্পিউটার ও ল্যাপটপ দিতে বলেন তিনি। রাত আটটার পরপর ক্যাপ পরা তিন যুবক বাসায় এসে তার ল্যাপটপ, কম্পিউটার সেলফোন ও একটি ক্যামেরা নিয়ে যায়। বাড়ির নিরাপত্তা ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় এই দৃশ্য।

এই ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় তার গাড়িটি উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে পুলিশ বলছে, মারুফ জামানের সন্ধান বের করতে কাজ করছেন তারা। এম মারুফ জামান ২০০৮ থেকে ‘ ০৯ সাল পর্যন্ত ভিয়েতনামে এবং তার আগে কাতারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।