কম্বোডিয়ায় সড়ক হবে বঙ্গবন্ধুর নামে

0
52

কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনের একটি সড়কের নামকরণ করা হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে। আর ঢাকার বারিধারার পার্ক রোডের নামকরণ হবে কম্বোডিয়ার সাবেক রাজা নরাদম সিহানুকের নামে।বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে ব্রিফিং করে মন্ত্রিসভার বৈঠকের এ কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, মন্ত্রিসভার আজকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর কম্বোডিয়া সফর সম্পর্ক অবহিত করা হয়। বৈঠকে সড়কের নামকরণ করার বিষয়টি জানানো হয়।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দশম জাতীয় সংসদের ২০১৮ সালের প্রথম অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি যে ভাষণ দেবেন, তা অনুমোদন করা হয়েছে। ভাষণে অর্থনীতির বিভিন্ন চিত্র, সরকারের সাফল্য, রূপকল্প বাস্তবায়নে নেওয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্ত, কর্মসংস্থান, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীসহ সরকারের বিভিন্ন নীতি ও কৌশল গুরুত্ব পেয়েছে।পরে বিকালে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।শফিউল আলম বলেন, দরাষ্ট্রপতির বিস্তারিত ভাষণ হবে ৭২ হাজার ৩৮৬ শব্দের এবং সংক্ষিপ্ত ভাষণ হবে সাত হাজার ৪৫৭ শব্দের। তবে এ ভাষণ আরও সংক্ষিপ্ত করা হতে পারে। সংক্ষিপ্ত ভাষণটি ছয় হাজার শব্দের মধ্যে আনা হবে।

তিনি আরও বলেন, খসড়ায় ৯টি বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে- দেশের সার্বিক অর্থনীতি, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা, রূপকল্প-২০২০-২১ বাস্তবায়নের অগ্রগতি, ডিজিটাল বাংলাদেশ, বাংলাদেশের কর্মসংস্থান, সামাজিক নিরাপত্তা বলয়, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এবং প্রশাসনিক বিন্যাস। আগামী ৪ জানুয়ারির মধ্যে এ খসড়া চূড়ান্ত করা হবে। অধিবেশনের প্রথম দিনেই রাষ্ট্রপতি সংসদে ভাষণ দেবেন।শীতকালীন অধিবেশন কবে বসতে পারে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এটা রাষ্ট্রপতির বিষয়। তিনি যেদিন সংসদের অধিবেশন ডাকবেন সেদিনই অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বৈঠকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে শোকপ্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। এ ছাড়া শীতলপাটি ইউনেসকোর স্বীকৃতি পাওয়ায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানানো হয়।