চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিনটি বাংলাদেশের

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হেরে বছরের শুরুটা ভালোভাবে করতে পারেনি বাংলাদেশ। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে চলছে সেই হারেরই প্রতিশোধ নেওয়ার প্রস্তুতি।সেই লক্ষ্যে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টের শুরুটা দারুণভাবে করেছে টাইগাররা। প্রথম চার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমের দারুণ ব্যাটিংয়ে প্রথম দিনটি নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। দিনশেষে চার উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছে ৩৭৪ রান।
চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ঝড়ো সূচনা করেছিল বাংলাদেশ। রীতিমতো ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাটিং করছিলেন তামিম ইকবাল। উদ্বোধনী জুটিতে তামিম ও ইমরুল জমা করেছিলেন ৭২ রান। গড়ে দিয়েছিলেন শক্ত ভীত। এই ৭২ রানের ৫২ রানই এসেছে তামিমের ব্যাট থেকে। ১৬তম ওভারে দিলরুয়ান পেরেরার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেছিলেন তামিম। দ্বিতীয় উইকেটে মুমিনুল হকের সঙ্গে জুটি বেঁধে ইমরুল যোগ করেছিলেন আরো ৪৮ রান। ২৮তম ওভারে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরার আগে ইমরুল করেছেন ৪০ রান। দুই ওপেনারের উইকেট হারানোর পরও দাপুটে ব্যাটিং অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ। তৃতীয় উইকেটে মুমিনুল ও মুশফিক গড়েছিলেন ২৩৬ রানের দারুণ জুটি। তৃতীয় উইকেটে এটিই বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ জুটির নতুন রেকর্ড।
তবে শতকের খুব কাছাকাছি গিয়েও হতাশ হতে হয়েছে সাবেক অধিনায়ক মুশফিককে। ৯২ রান করে ধরতে হয়েছে সাজঘরের পথ। তবে মুমিনুল শতক তো বটেই, এখন ছুটে চলেছেন দ্বিশতক করার পথে। প্রথম দিনের খেলা শেষে ১৭৫ রান করে অপরাজিত আছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ৯ রান নিয়ে দিন শেষ করেছেন মাহমুদউল্লাহ। প্রথম দিনের খেলায় হতাশা ছড়িয়েছেন শুধু পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামা লিটন দাস। প্রথম বলেই আউট হয়ে শূণ্য রানে সাজঘরে ফিরেছেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।চট্টগ্রামের স্পিন-সহায়ক পিচে মাত্র এক পেসার নিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। দলের একমাত্র পেসার হিসেবে আছেন মুস্তাফিজুর রহমান। সাকিব আল হাসান ইনজুরির কবলে পড়ায় দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ।