বিএনপি চাইছে আগামি নির্বাচনকে নস্যাৎ করার- ডা. দীপু মনি এমপি

আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপি বলেছেন, বিএনপি চাইছে আগামি নির্বাচনকে যে কোন ভাবে নস্যাৎ করতে চাইছে। তাদের আলামত তাই বলে। নির্বাচনে সকলের অংশ নেয়ার সুষ্ঠু ব্যবস্থা থাকবে, সমান সুযোগ থাকবে। আমরা বিএনপি’কে আহবান জানাই আপনারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুন এবং তার মাধ্যমে আমাদের যে গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা চলছে সে অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।

তিনি সোমবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বড়বাড়ী খেলার মাঠে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের প্রথম বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো: ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে সম্মেলনের প্রধান বক্তা ছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন। গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম দীপের সঞ্চালনায় সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. আজমত উল্লাহ খান, গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মহি উদ্দিন মহি, কাজী ইলিয়াস আহমেদ, আকরাম হোসেন সরকার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের গাজীপুর মহানগর শাখার সাধারন সম্পাদক হাজী মনিরুজ্জামান মনির, ছাত্রলীগ নেতা আরিফুর রহমান সোহাগ, রাজিব আহম্মেদ রাসেল প্রমুখ।

সম্মেলন শুরু আগে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে মিছিল সহকারে অনুষ্ঠানস্থলে এসে উপস্থিত হয়। তিনি আরো বলেন, আজকে প্রতিটি মানুষ ভাল আছে। একটি মানুষও না খেয়ে মরে না। প্রত্যেকটি মানুষ তার গায়ে কাপড় আছে, পায়ে জুতো-সেন্ডেল আছে। প্রতিটি শিশু স্কুলে যায়। বছরের প্রথম দিন নতুন বই পায়। শিক্ষা, চিকিৎসা সকল কিছুর ব্যবস্থা আছে। প্রায় ১৩ হাজারের বেশি কমিউনিটি ক্লিনিকে আজকে গ্রাম বাংলার মা-বোনেরা প্রত্যেকে চিকিৎসা সুবিধা পাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী একটি অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত করেছেন। এ সমস্ত উন্নয়ন দেখে আজকে যারা বাংলাদেশের উন্নয়নকে মেনে নেয়নি, যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। যারা বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রতি চায় না, তারা আজকে খুবই চিন্তিত আবারো যদি আগামি নির্বাচনে মানুষ শেখ হাসিনাকে চায় আবারো শেখ হাসিনার সরকার আসে আর কোন ভাবে এই দেশকে পাকিস্তান বানানোর পরিকল্পনা আর কোন দিন কোন আশার আলো দেখবে না। তিনি বলেন, আজকে তারা মরিয়া হয়ে উঠেছে। সেই কারণে আজকে আমাদের সকলকে প্রস্তুত থাকতে হবে এবং সজাক ও সর্তক থাকতে হবে। জনগনকে সাথে নিয়ে আমরা এই সকল অপচেষ্টাকে প্রতিহত করবো।

ছাত্রলীগের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যখন দল ক্ষমতায় থাকে তখন অনেক অনুপ্রবেশকারী আসে দলের নাম ভাঙ্গিয়ে নিজের আখের গোছাবার চেষ্টা করে। আপনারা সর্তক থাকবেন। যাতে কোন রকম অনুপ্রবেশকারী আপনাদের মধ্যে না ডুকতে পারে। তারা যেন কোনভাবে অপকর্ম করে আপনাদের নামে কলঙ্ক লেপন করতে না পারে। ছাত্রলীগ তার ইতিহাস ঐতিহ্য ও আর্দশের প্রতি বিশ্বস্ত থেকে এগিয়ে যাবে। সকল প্রকার যত অপচেষ্টাই করুক না কেন, যে কোন অপশক্তি তাকে নস্যাৎ করে দিয়ে ছাত্রলীগ এগিয়ে যাবে।