৩-১০ মিটার নেমে গেছে ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর

সুপেয় পানি ও কৃষিকাজে ভূ-গর্ভস্থ পানির উপর অধিক হারে নির্ভরশীলতার কারণে ইতোমধ্যে ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর ৩ থেকে ১০ মিটার পর্যন্ত নেমে গেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

মঙ্গলবার বিকেলে সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। মন্ত্রী জানান, পানির স্তর নেমে যাওয়ায় শুষ্ক মৌসুমে নলকূপে পর্যাপ্ত পানি পাওয়া যায় না। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য সরকার থেকে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পৌনে চারশ কোটি টাকা ব্যয়ে গৃহীত একটি প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে ৮০৯টি পুকুর পুনঃখনন করা হচ্ছে। তাছাড়া পল্লী অঞ্চলে পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় ১৪৩টি পুকুর পুনঃখনন ও ২শটি পুকুর নতুনভাবে খনন করা হচ্ছে। এ জলাধারগুলোর পানি ভূ-স্তরে প্রবেশ করে ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর উন্নতিতে সহায়তা করবে। আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসনে জানান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বাসস্থান নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পটি স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিইডির অধীনে বাস্তবায়নাধীন। এ প্রকল্পের মূল প্রকল্প ব্যয় ২২৭ কোটি ৯৮ লাখ। তিনি জানান, এ প্রকল্পের ডিপিপিতে মোট ২ হাজার ৯৭১টি বাসস্থান নির্মাণ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এর মধ্যে ২ হাজার ৬৯৮টি বাসস্থান নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। ২৭৩টি বাসস্থান নির্মাণ কাজ চলমান। প্রকল্পের সংশোধিত মেয়াদ ২০১৮ সালের জুনের মধ্যে সব বাসস্থান নির্মাণ কাজ শেষ হবে।