এমপি লিটন হত্যায় জাপা নেতাসহ ৭ জন অভিযুক্ত

আওয়ামী লীগ নেতা ও গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা ও জাপা নেতা আবদুল কাদেরসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।বুধবার দুপুরে গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ছয় আসামির উপস্থিতে এই অভিযোগ গঠন করা হয়।

আবদুল কাদের ছাড়া অন্য আসামিরা হলেনÑমেহেদী হাসান, আনোয়ারুল ইসলাম, শাহিন মিয়া শান্ত, আবদুল হান্নান, শামসুজ্জোহা, সুবল চন্দ্র রায় কসাই ও চন্দন। এর মধ্যে চন্দন ভারতে পলাতক।গাইবান্ধার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম শফিক জানান, ঈর্ষান্বিত হয়ে ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনকে তাঁর নিজ বাড়িতে গুলি করে হত্যা করা হয়।এ ঘটনায় নিহতের বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকলী বাদী হয়ে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।পরবর্তী সময়ে সুন্দরগঞ্জ থানার পুলিশ কর্মকর্তা আবু হায়দার আশরাফি হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহে সাবেক সেনা কর্মকর্তা কাদের খান ও তাঁর সহযোগীদের গ্রেপ্তার করেন। পরে ২০১৭ সালের ৩০ এপ্রিল গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।আজ গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রাশেদা বেগম ছয় আসামির উপস্থিতিতে অভিযোগ গঠন করেন।