গাজীপুরে পোশাক কারখানা ও গুদামে পৃথক অগ্নিকান্ড

গাজীপুরে পোশাক তৈরীর এক কারখানায় বুধবার দুপুরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে বিপুল পরিমাণ ফেব্রিকস ও আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এদিকে পোশাক তৈরীর অপর এক কারখানার গুদামে পৃথক অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আক্তারুজ্জামান জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকায় ‘গ্রীনল্যান্ড লিমিটেড’ নামের পোশাক কারখানার ৬ তলা ভবনের তৃতীয় তলায় বুধবার দুপুর ১টার দিকে আগুনের সূত্রাপাত হয়। মুহূর্তেই আগুন পুরো ফ্লোরে ছড়িয়ে পড়ে। কারখানার কর্মী ও স্থানীয়রা আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। খবর পেয়ে গাজীপুরের জয়দেবপুর, কাশিমপুরের ডিবিএল, কালিয়াকৈর ও সাভারের ইপিজেড ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের আটটি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তারা প্রায় তিন ঘন্টা চেষ্টার পর বিকেল ৪টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে বিপুল পরিমাণ ফেব্রিকস ও আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ওই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে গাজীপুরে অপর এক পোশাক কারখানার গুদামে মঙ্গলবার মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডের ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিটের কর্মীরা দেড় ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নেভায়।

সাভারের ইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের দক্ষিণ পানিশাইল এলাকায় ডোরিন গার্মেন্টস লিমিটেডের কারখানার পাঁচ তলা ভবনের নিচ তলায় গুদামে মঙ্গলবার মধ্যরাতে আগুনের সূত্রাপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের গাজীপুরের কালিয়াকৈর ও ইপিজেড স্টেশনের চারটি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় দেড় ঘন্টার চেষ্টায় রাত সাড়ে ১২টার দিকে আগুন নেভায়।