বুড়িমারীতে আ’লীগের সড়ক অবরোধ ও প্রতিবাদ সমাবেশ

102

স্থল বন্দরে চাঁদাবাজি বন্ধসহ স্থানীয় সাংসদ মোতাহার হোসেন এমপির বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় জাতীয় মহাসড়কের দুই পাশে প্রায় কয়েকশত ট্রাক আটকে থাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১ থেকে ১২ টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী বুড়িমারী স্থলবন্দর জিরো পয়েন্ট থেকে বাজার কাস্টমস্ এলাকা জুড়ে শতশত নেতাকর্মীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

সমাবেশে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন ও বুড়িমারী ইউনিয়ন আ’লীগকে চাঁদাবাজীতে জড়িত করে খবর প্রকাশ করায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বুড়িমারী ইউনিয়ন আ’লীগের আহবায়ক তাহাজুল ইসলাম মিঠু, যুগ্ন আহবায়ক শাহিনুর আলম শাহিন, কাশেম আলী, আবুল কালাম, শেখ রাসেল, রেজাউল করিম, বাদশা আলমগীরসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সম্পাদক বৃন্দ।

বক্তব্যে তাহাজুল ইসলাম মিঠু দাবী করেন, বুড়িমারী স্থলবন্দরে চাঁদাবাজী ও দূর্নীতি বন্দে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন উপানুষ্ঠানিক পত্র নং- বাজাস/ প্রাগশিস্থাক/১০৫৫, ৭৫, ১০৭ স্মারকে একাধিকবার প্রধানমন্ত্রীকে অবগত করে পত্র দেন। এর পরপরেই স্থল বন্দরে চাঁদাবাজির সাথে জড়িত থাকা মহলটি উল্টোদিকেই মোতাহার হোসেন এমপির বিরুদ্ধে বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করায়।
উক্ত প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করি ঐ আ’লীগ নেতা মিঠু।

পাটগ্রাম থানা অফিসার ইনচার্জ আরজু মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বুড়িমারী স্থলবন্দরে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে স্থানীয় আ’লীগের দলীয় নেতাদের সাথে কথা বলে বিক্ষুব্ধদের অবরোধ কর্মসূচী প্রত্যাহার করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টমস সহকারী কমিশনার (এসি) মোস্তাফিজুর রহমান সড়ক অবরোধের কথা স্বীকার করে বলেন, বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকায় অবরোধ ও প্রতিবাদ সমাবেশের কারণে প্রায় ১ ঘন্টার মতো স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি পণ্যবাহী যানবাহন চলাচলে কিছুটা ব্যাঘাত ঘটে। অবশ্য পুলিশের হস্তক্ষেপে অবরোধ ও প্রতিবাদ কর্মসূচী শেষের পর পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল স্বাভাবিক হয়।