কোটা সংস্কার আন্দোলনের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাড়িতে যারা হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছিল, তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।গত ৯ এপ্রিলের হামলার ঘটনায় ইতোমধ্যে এক মাদ্রাসাছাত্রসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার ঢাকার ফার্মগেইটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে বলেন,“জড়িত বাকিদের শনাক্ত করছি এবং সুনির্দিষ্ট হয়ে তাদের আমরা গ্রেপ্তার করব। অবশ্যই কাউকে ছাড় দেব না।গত রোববার রাকিবুল হাসান ওরফে রাকিব (২৬), মাসুদ আলম ওরফে মাসুদ (২৫), আলী হোসেন শেখ ওরফে আলী (২৮) এবং আবু সাইদ ফজলে রাব্বী ওরফে সিয়াম (২০) নামে চারজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।তাদের গ্রেপ্তারের পাশাপাশি উপাচার্যের বাড়ি থেকে লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।ওই চারজনের বিষয়ে তিনি বলেন,তারা কেউ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নয়। এরা কেন এসেছিল- তা আরও কয়েকদিন পর আমরা পরিষ্কার হব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যথেষ্ট তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতেই হামলাকারীদের গ্রেফতার করছে পুলিশ। এখানে কাউকে হয়রানির সুযোগ নেই। গ্রেফতারদের কাছ থেকে ইতোমধ্যে অনেক তথ্য জানা হয়েছে। তাদের দেওয়া তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এ ঘটনায় জড়িত প্রত্যেককেই আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি বলেন, সেদিনের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি আছে, সাংবাদিক ভাইদের কাছে ভিডিও ফুটেজ রয়েছে এবং আমাদের কাছেও যা আছে সেই অনুযায়ী আমরা গ্রেফতার অভিযান শুরু করছি, আইডেন্টিফাই শুরু করছি, আমরা দেখছি। যাদের ধরা হয়েছে তারা কেউ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র না। এরা কেনো এসেছিল আরও কয়েকদিন পরে আমরা পরিষ্কার করে জানা যাবে।গত ২৯ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের (ভিসি) বাসভবনে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও মালামাল চুরির ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিবি)। এসময় তাদের কাছ থেকে উপাচার্যের বাসভবন থেকে চুরি হওয়া দু’টি মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়।