আমার চিন্তাধারার সাথে অনেকের চিন্তার কিছু ব্যতিক্রম হতেই পারে, কারণ তিনযুগ সুইডেনে বাস, সাথে বিভিন্ন দেশের মানুষের সাথে উঠাবসা। তাই হতেই পারে কিছুটা ব্যতিক্রম। খবর ঘটেছে সুইডেনে, যা না বললেই নয়। ১৯০১ সাল থেকে সাহিত্যে সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এ পুরস্কার দিয়ে আসছে সুইডিশ একাডেমি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণে সর্বশেষ ১৯৪৩ সালে পুরস্কার দিতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি। দীর্ঘ সাত দশকের বেশি সময় পর আবারও একই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে সুইডিশ একাডেমির ছয়জন সদস্য পদত্যাগ করেন। এ পদত্যাগের ফলে ২৩০ বছরের পুরনো এ প্রতিষ্ঠানটির স্বাভাবিক কার্যক্রমে বড় ধরনের ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়। সুইডেনের সবচেয়ে সম্মানিত এ সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সদস্য নির্বাচন করা হয় অতি গোপনে। পরে সুইডেনের রাজা তাদের চূড়ান্ত অনুমোদন দেন। লিটারেচারের উপর নোবেল পুরস্কার বিতরনণর সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে সুইডেনের লিটারেচার নোবেল কমিটি। কারণ তাদের ম্যানেজমেন্টের উপর সুইডিস নাগরিকদের আস্থার অভাব, এক্ষেত্রে তাদের ম্যানেজমেন্টের রদবদল করা হয়েছে। সেই সাথে একবছর সময় দেওয়া হয়েছে আস্থা ফিরে আনবার। জনগণ যদি মনে করে তারা তাদের কাজ সঠিকভাবে করতে সক্ষম তখন লিটারেচারের উপর আগামী বছর নোবেল পুরস্কার দেবার সুযোগ দেওয়া হবে। অবনতি, দুর্নীতি বা দুর্বল ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তে যদি সঠিক ব্যক্তি নোবেল পুরস্কার না পায় তার জন্য সুইডেন এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সুইডেনের জনগণ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে নতুন চিন্তাধারার এবং সততার জন্য পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ জাতি বলে পরিচিত। এবার অন্য প্রসঙ্গে।

দেওয়া-নেওয়া এমন একটি বিষয় যা বদলে দিতে পারে সমাজকে বা মানুষের মনুষ্যত্বকে এবং তা হতে পারে ভাল বা মন্দ। যখন দেওয়া-নেওয়াটা পারস্পরিক সমঝোতার মধ্যে হয় তখন সেটা সমাজের জন্য ভালো। আর যদি সেটা হয় জোরপূর্বক বা ইচ্ছার বিরুদ্ধে তখন সেটা সমাজের চোখে ভয়ংকার বা বলতে পারা যায় ঘুষ বা দুর্নীতি। ডাক্তার, উকিল,শিক্ষক, প্রকৌশলী, শ্রমিক এমনকি হুজুররা যখন কারো জন্য কিছু করে অর্থ উপার্জন করে সেটাকে নিন্দার চোখে কেউ দেখে না। তবে একজন পুলিশ বা অন্য কেউ দেখা যাচ্ছে অনেক সময় কারো উপকার করে / বিনা অপরাধে বা কোনো দুষ্কৃতিকারিকে সাজা না দিয়ে তার থেকে অর্থ কামাই করে, সেটাকে দুর্নীতি বা ঘুষ বলে ঘৃণার চোখে দেখা হয়। একজন উকিলের বিষয়টি কিন্তু অন্যরকম। বিচারকের কাঠগড়ায় ন্যায়-অন্যায়ের পালা। উকিল বেশিরভাগ সময় জানে কোনটা অন্যায় আর কোনটা ন্যায়। ন্যায় বা অন্যায়ের কাঠগড়াতে যখন একজন পারদর্শী উকিল অন্যায়কারীকে বেকসুর খালাস করে, সমাজের চোখে তখন তিনি একজন বিখ্যাত নাম করা উকিল! এখন আলোচনার বিষয়, কোনটা দুর্নীতি বা ঘুষ আর কোনটা দুর্নীতি বা ঘুষ নয় এবং কেনো?
আমাদের মুরাল ভ্যালু এবং সুশিক্ষার উন্নতি আনতে হলে ভালো মন্দের ব্যবধান জানতে হবে। Moral values are the principles that guide us throughout our lives. From childhood to adulthood we keep on learning and transforming ourselves and so do our morals. Moral values are important in life because: বিবেকবান মানুষ হতে হলে খুঁজতে হবে সত্যকে এবং তার জন্য দরকার সুশিক্ষার। -বিশেষায়িত শিক্ষা প্রশিক্ষণ বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে হবে এমন ধরনের আলোচনা।

রহমান মৃধা, পরিচালক ও পরামর্শক, সুইডেন।, [email protected]