টি-টোয়েন্টির কারণে হারিয়ে যাওয়ার পথে টেস্ট

টি-টোয়েন্টির আবির্ভাবের পর জৌলুস হারিয়েছে টেস্ট ক্রিকেট। বিশ্বজুড়ে টি-টোয়েন্টির প্রসারের ফলে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে টেস্টের সেই গ্ল্যামার। টেস্ট খেলুড়ে অধিকাংশ দেশই চালু করে দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট।ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে দর্শক সমর্থকদের কাছে। যার ফলে টেস্ট ক্রিকেট একদিন হারিয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্র্যানডন ম্যাককালাম।২০১৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরে যান ম্যাককালাম। বর্তমানে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক বিভিন্ন টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলে যাচ্ছেন তিনি। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলতি আসরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হেয়ে খেলছেন ৩৬ বছর বয়সী এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

টেস্ট ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে নিউজিল্যান্ডের এই তারকা ক্রিকেটার বলেন, যেভাবে টি-টোয়েন্টির প্রচার এবং প্রসার হচ্ছে। আমার মনে হয় একটা সময়ে টেস্ট ক্রিকেট হারিয়ে যাবে। তাছাড়া হাতেগোনা কয়েকটি দেশই কেবল টেস্ট ক্রিকেট খেলছে।নিউজিল্যান্ডের হয়ে ১০১ টেস্ট খেলে ৬৪৫৩ রান সংগ্রহ করা এ ক্রিকেটার বলেন, মানুষ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে শুধু খেলা হিসেবেই নয়, বিনোদন হিসেবেও দেখে না। চার-পাঁচ দিন ধরে টেস্ট ক্রিকেট দেখার মতো সময় এখন মানুষের নেই। তারা শেষদিনের হয়তো প্রথম সেশন বা শেষ সেশন দেখবে। যদি তা দেখার মতো হয়।ম্যাককালাম মনে করেন, কিছুদিন পর, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো খেলোয়াড়দের নিয়ন্ত্রণ করবে। এবং তারা তাদের খেলোয়াড়দের টেস্ট খেলার জন্য অনুমতি দেবে না।