গাজীপুরে খুলনার নির্বাচন পরিস্থিতি হলে সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে : হাসান সরকার

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোটের বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী (ধানের শীষ) হাসান উদ্দিন সরকার বলেছেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এবারের নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিচ্ছি। প্রতিটি কেন্দ্রে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে। আমাদের কর্মীরা জীবন দিয়ে হলেও ব্যালট পেপার রক্ষায় বদ্ধ পরিকর। নির্বাচন কমিশন খুলনা মডেলের মতো গাজীপুরের নির্বাচন করতে চাইলে পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে এবং ওইদিনই এ সরকারের ভাগ্য নির্ধারণ হবে। আগামী ২৬ জুন ভোট ডাকাতি করার চেষ্টা করা হলে আমাদের কর্মী বাহিনী ভোট ডাকাতদের মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিবে।

তিনি আরো বলেন, ১৯৭১ সালে গাজীপুর থেকেই মুক্তিযুদ্ধের সূচনা হয়েছিল। আবার ৪৮ বছর পর দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের সুরক্ষা এবং জনগণের ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য গাজীপুর থেকেই আন্দোলন সূচিত হবে।

বৃহস্পতিবার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভা শেষে হাসান উদ্দিন সরকার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। তিনি নিজ বাসভবনে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভায় অংশ নেন। পরে তিনি গাজীপুর আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে যান। এসময় তার সাথে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুকসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এরআগে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের টঙ্গীস্থ বাসভবনে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ এবং খুলনার নির্বাচনের প্রেক্ষিতে গাজীপুরে ২০ দলের কেন্দ্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলার সম্ভাব্য দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি ফজলুল হক মিলনের সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কালিয়াকৈর পৌর মেয়র মজিবুর রহমান, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. মাজহারুল আলম, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার, গাজীপুর জেলা বিএনপির সহসভাপতি মীর হালিমুজ্জামান ননী, সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সোহরাব উদ্দিন, টঙ্গী থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম শুক্কুর, গাজীপুর সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সুরুজ আহমেদ, জেলা বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মেহেদী হাসান এলিস, সদর থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বসির আহমেদ বাচ্চু, গাজীপুর জেলা হেফাজতে ইসলামীর যুগ্ন সম্পাদক মুফতি নাসির উদ্দিন খান, সদর থানা ছাত্রদলের সভাপতি নাসির উদ্দিন নাসির প্রমুখ।