কুয়াকাটা সৈকতের বেলাভূমে বিশালাকৃতির মরা তিমি

কুয়াকাটার সৈকতের বেলাভূমে বিশাল আকৃতির একটি মৃত তিমি মাছ ভেসে আটকে গেছে। জেলেরা জানান, প্রায় ৪৫ ফুট লম্বা ও ২০ ফুট প্রশস্ত বিশাল আকৃতির একটি মৃত তিমিটি শুক্রবার রাতের যে কোন সময় ভেসে এসেছে। সৈকতের পূর্বদিকের ঝাউবাগান সংলগ্ন রিজার্ভ ফরেস্ট এলাকায় এটি ভেসে আসে বলে জেলেরা জানায়। শনিবার ভোরে আগত পর্যটক ও জেলেদের নজরে মৃত তিমির খবরটি প্রথমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে যায়। জেলেরা এও জানায় অন্তত ১৪-১৫দিন আগে তিমিটি মারা গেছে। জেলেদের জালে আটকা পড়ে তিমিটি মারা যেতে পারে বলেও তাঁদের মন্তব্য।এটির শরীরে পচন ধরেছে। ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। দ্রুত অপসারন করা প্রয়োজন বলেও পর্যটকদের মতামত।

সামুদ্রিক জীববৈচিত্র সংরক্ষণকারী গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়াইল্ডলাইফ কনজার্ভেশন সোসাইটির মেরিন এডুকেশন এন্ড ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর ফারহানা আখতার বলেন, এটি ব্রিডিস তিমি বা বেলিন তিমি। এরা সাধারণত ৪০ থেকে ৫০ ফুটের মত লম্বা হয়ে থাকে। কালো থেকে ধূসর বর্ণের এই তিমির পেটের দিকটা অনেকটা হালকা ক্রিম রংয়ের। এদের দাঁত থাকেনা, এর বদলে ছাঁকনির মত অংশ থাকে। যার মাধ্যমে এরা পানি থেকে ছোট ছোট মাছ ও চিংড়িজাতীয় প্রাণী খেয়ে বাঁচে।এদের মাথাটি খাটো ও চওড়া এবং মাথায় তিনটি সমান্তরাল খাঁজ থাকে, যা দিয়ে সহজেই এদের আলাদা করা যায়। এরা সাধারণত ১২ বছর বয়স থেকে বাচ্চা জন্ম দিতে পারে। বাংলাদেশের জল সীমানায় সোয়াচ-অব-নো গ্রাউন্ড এলাকায় এদেরকে সচরাচর দেখা যায়। কুয়াকাটা বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ও কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তানভীর রহমান জানান, একটি মৃত তিমি ভেসে আসার খবর পেয়েছেন। এটিকে অপসারনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।