উয়েফা চ্যাম্পিয়ন লিগের শিরোপা জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ

গ্যারেথ বেল এর জোড়া গোলে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন লিগের শিরোপা জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ, ফাইনালে লিভারপুলকে ৩-১ গোলে হারায় লসব্ল্যাঙ্কোরা। এ যেন বিশ্বকাপের আগে পুরো বিশ্বকে ফুটবল জ্বরে আক্রান্ত করার মহড়া। ট্রফি উঁচিয়ে ধরার দৃশ্য দেখে না বোঝার কোন উপায় নেই, কে হলো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চ্যাম্পিয়ন।

ফাইনালের স্নায়ুক্ষয়ী যুদ্ধে প্রথমেই হার মানতে হলো লিভারপুল তারকা মোহামেদ সালাহকে, ২৯ মিনিট পর আঘাত পেয়ে ছাড়লেন মাঠ, এর ৯ মিনিট পর একই পরিস্থিতির স্বীকার রিয়ালের কারবাহাল। প্রথম ৪৫ মিনিটে গোল ব্যবধানে এগিয়েছিলোনা কেউই, গোল শুন্য প্রথমার্ধে লিভারপুলের ৩৩ পার্সেন্ট বল পজিশানের বিপরিতে রিয়াল এগিয়েছিলো ৩৪ পার্সেন্ট।

পরের ৪৫ মিনিটের খেলায় ৬ মিনিট গড়াতেই অলরেড কিপার লরিস কারিয়াসের ছুড়ে দেয়া বলে পা লাগিয়ে রিয়ালকে এগিয়ে দেন বেঞ্জামা, ক্লপ শিষ্যদের আপত্তি না শুনে গোলের বাঁশি বাজান রেফারি। ৪ মিনিট পর ম্যাচে সমতা, লোভরেনের পাস থেকে সাদিয়োমানের ফিনিশিং, লিডের বোঝা ঘাড় থেকে নামতেই ইয়োর্গেন ক্লপ যেন মাটি খুঁজে পেলেন পায়ের তলায়।

৬০ মিনিটে ইসকোকে তুলে নিয়ে জিদনের বেল ভেলকি, ব্যবধান মাত্র চার মিনিট, মার্সেলোর ক্রসে ব্যাকভলির কামান দাগালেন ওয়েলস ফরোয়ার্ড, ব্যাস ২-১ এ এগিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। ৮৩ মিনিটে আবারো গ্যারেথ বেল ঝলক, লম্বা ভলিতে আত্নবিশ্বাসের তলানিতে থাকা লিভারপুল গোল কিপারের হাত ফসকে বল চলে যায় জালে, ৩-১ এগিয়ে গেলো রিয়াল।

গোল পাননি রেকর্ড পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন লিগের শিরোপা জয়ী দলের হয়ে খেলা মহাতারকা রোনালদো, শেষে পেলেন একটি সুযোগ, বেরসিক দর্শকের মাঠে প্রবেশে ভেস্তে গেলো সিআর সেভেনের গোলের সুযোগ, এরপরই লিবারপুলের কপাল পোড়ানো ম্যাচ শেষের বাঁশি। কিয়েভে হ্যাট্রিক শিরোপ জয় করেই মাঠ ছাড়ে জিনেদিনে জিদানের শিষ্যরা।