ভারতীয় সেনার গাড়ি চাপায় যুবকের মৃত্যু, উত্তাল কাশ্মীর

ভারতীয় সেনাবাহিনীর গাড়ির চাপায় ২১ বছরের এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় বিক্ষোভে উত্তাল গোটা কাশ্মীর উপত্যকা। শুক্রবার বিক্ষোভরত কাশ্মীরিদের ওপর সেনাদের গাড়ি উঠিয়ে দেয়ায় ছয় যুবক গুরুতর আহত হয়। তাদের একজনের শনিবার মৃত্যু হয়েছে। ভারতীয় সেনাদের এ গাড়ি চাপার এ মর্মান্তিক দৃশ্য বিশ্বজুড়ে ভাইরাল পড়ে পড়েছে। খবর: আল আরাবিয়া

নিহত যুবকের নাম কাইজার আহমেদ। ভারতীয় সেনাদের দাবি, শুক্রবার জুমার নামাজের পর বিক্ষোভকারীদের বাধায় গাড়িটি আটকে পড়ে। সেনাদের জীবন বাঁচাতেই তারা বিক্ষোভকারীদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দিতে বাধ্য হয়। তখনই ঘটে এই ঘটনা। এদদিকে পুলিশ জানায়, শুক্রবার নমাজের সময় কোনও গোলমাল এড়াতে সেখানে কোনও জওয়ানকে মোতায়েন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল নিরাপত্তাবাহিনী। স্থানীয় জামিয়া মসজিদে নামাজ শেষ হওয়ার পরেই লোকজন সিআরপিএফের গাড়িটির ওপর পাথর বৃষ্টি শুরু করে। বিক্ষোভকারীদের ঠেকাতে প্রথমে টিয়ারগ্যাস ছোঁড়া হয়। ভুল দিকে ঘুরে গাড়িটি অন্য কাজে যেতে গেলে বিক্ষোভকারীদের মুখে পড়ে যায় সেটি। গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা লাগে দুজনের। আগতদের নিয়ে যাওয়া হয় সৌরার হাসপাতালে।
এই ঘটনার পর প্রদেশটির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, আগে মানুষকে সেনাদের গাড়ির সামনে বেঁধে বিক্ষোভকারীদের শিক্ষা দিতে গ্রামে গ্রামে ঘোরানো হয়েছে। এখন তো তারা তাদের ওপর দিয়েই গাড়ি চালিয়ে দিচ্ছে। এটাই কি আপনাদের যুদ্ধবিরতি?