পাহাড় ধসে নিহত ১১

রাঙামাটির নানিয়াচরে পাহাড় ধসে অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরও অনেকে। রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলার বরগ্রামে একই পরিবারের ৩ জনসহ ১০ জন মারা গেছেন। নানিয়ারচর থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল লতিফ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে তারা হলেন, নানিয়ারচরে বড়কূলপাড়ার একই পরিবারের তিন সদস্য সুরেন্দ্র লাল চাকমা (৪৮), তার স্ত্রী রাজ্য দেবী চাকমা ও মেয়ে সোনালী চাকমা (০৯)। এছাড়া হাতিমারা গ্রামের রুমেল চাকমা (১২), রিতান চাকমা (২৫) ও রীতা চাকমা (১৭)। শিয়াইল্লাপাড়া গ্রামের ফুলদেবী চাকমা (৩২), ইতি চাকমা (২৪) ও শিশু অজ্ঞাত (২ মাস)।

এ ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন। এতে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভারী বর্ষণের কারণে পাহাড় ধসের এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

নানিয়ারচর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কোয়ালিটি চকমা জানান, টানা বৃষ্টির কারণে পাহাড় ধসে পড়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। পাহাড় ধসের পর থেকে উপজেলার বেশিরভাগ এলাকাই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে।

এদিকে কক্সবাজারের মহেশখালীতেও পাহাড় ধসে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জামতলী এলাকায় গাছ চাপায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।