বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে যাবেন না খালেদা জিয়া, নিজ খরচে ইউনাইটেডে চিকিৎসা নিতে চান

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কাছে শামীম ইস্কান্দারের আবেদন

সাবেক প্রধানমন্ত্রী, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসা নিতে যাচ্ছেন না। ফলে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আপাতত তাকে হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে না। এ তথ্য জানিয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির বলেন, ‘খালেদা জিয়া বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা নিতে আগ্রহী নন। তিনি জানিয়েছেন, ইউনাইটেড হাসপাতাল ছাড়া অন্য কোথাও চিকিৎসা নেবেন না। তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়ার জন্য আমাদের সকল প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু তিনি আগ্রহী না হওয়ায় আপাতত আমরা তাকে নিয়ে যাচ্ছি না।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন তার ভাই শামীম ইস্কান্দার। আজ(মঙ্গলবার)স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে এ আবেদন করেন তিনি। আবেদনে শামীম ইস্কান্দার বলেন, আমার বড় বোন খালেদা জিয়া নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে রয়েছেন। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে নানা অসুখে আক্রান্ত। কারাগারে তিনি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পাচ্ছেন না। তাই তার শারীরীক অবস্থার অবনতি হচ্ছে।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যয় তার পরিবার বহন করবে। তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া অনুমতি প্রদানের অনুরোধ করছি। এদিকে, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মোশাররফ হোসেন বলেছেন, প্রয়োজনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যয় বিএনপি বহন করবে, তবু দ্রুত ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ।

মঙ্গলবার সকালে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং চিকিৎসার জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষ। বিএসএমএমইউর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন বলেন, কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, বেলা ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য এখানে আনা হতে পারে। তাই তার চিকিৎসার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তার জন্য ৫১২ নম্বর কেবিন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তার চিকিৎসায় যেসব বিভাগের প্রয়োজন হবে, সেসব বিভাগের প্রধানরা প্রস্তুত ছিলেন।