মুসলিম দেশগুলোর ভ্রাতৃঘাতী সংঘাত দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে সংহতি বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ভ্রাতৃঘাতী সংঘাত দুঃখজনক।বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই)প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সফররত মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মোহাম্মদ বিন সাবু সৌজন্য সাক্ষাতে এলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে আলোচনা উঠলে প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের নিজ মাতৃভূমিতে প্রত্যাবর্তনে আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে মালয়েশিয়ার প্রতি আহ্বান জানান।এ সময় রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে জানান মালেশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও তাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিতে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করে।মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যকার ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। শেখ হাসিনা বলেন, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে প্রচুর সম্পদ আছে। পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে এই অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করতে হবে।সামরিক প্রশিক্ষণ ও কারিগরি সহযোগিতা করতে গিয়ে বাংলাদেশ এবং মালয়েশিয়ার মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান সফররত মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মোহাম্মদ বিন সাবু। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন ও উচ্চ জিডিপি প্রবৃদ্ধির প্রশংসা করেন তিনি।বৈঠককালে মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের শুভেচ্ছা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পৌঁছে দেন সফররত মন্ত্রী। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীও মাহাথির মোহাম্মদকে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় অন্যদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মাহফুজুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিন উপস্থিত ছিলেন।পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা। সাক্ষাতে পারস্পরিক বিভিন্ন বিষয় আলোচনার পাশাপাশি আগামী ১৩ জুলাই ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজিনাথ সিংয়ের তিনদিনের বাংলাদেশ সফর সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন তিনি।একই সঙ্গে দু’দেশের পুলিশ একাডেমির মধ্যে সহযোগিতা জোরদারের লক্ষ্যে সম্প্রতি সারদা পুলিশ একাডেমি সফরের কথাও তুলে ধরেন শ্রিংলা। এ সময় মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।