কেরালায় বন্যা-ভূমিধসে ২০ জনের প্রাণহানি

ভারতের কেরালা রাজ্যজুড়ে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বন্যা ও ভূমিধসে কমপক্ষে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে রাজ্যের ইদুক্কি জেলায় ১১ জন, মালাপ্পুরামে ছয়জন, কোজিকোদেতে দুইজন এবং ওয়েনাদে একজনের প্রাণহানি ঘটে।এছাড়াও পালাক্কাদ, ওয়েনাদ ও কোজিকোদে জেলায় বেশ কিছু লোক নিখোঁজ আছে।বৃহস্পতিবার (০৯ আগস্ট) রাজ্যের সরকারি কর্মকর্তারা ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি জানান।দেশটির পুলিশ বলছে, ইদুক্কি জেলার আদিমালী শহরের একটি পরিবারের পাঁচ সদস্য নিহত হয়েছেন। এছাড়া ওই পরিবারের বাকি দুইজনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

এদিকে, রাজ্যের কয়েকটি নিম্নাঞ্চলে বন্যার খবর পেয়েছে জাতীয় দুর্যোগ প্রতিরক্ষা বাহিনী (এনডিআরএফ)। তারা বলছে, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে কেরালাজুড়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সেইসঙ্গে ভূমিধসের আশঙ্কাও রয়েছে। তাই ঝুঁকিপূর্ণদের নিরাপত্তায় সংস্থাটি উদ্ধার অভিযান পরিচালনা শুরু করেছে।বন্যা পরিস্থিতি ও ভূমিধস মোকাবেল করতে কেরালা রাজ্য সরকার সেনাবাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছে। সরকার তার ইদুক্কি ও ওয়েনাদ জেলায় সেনা সদস্য চায়।এ বিষয়ে রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী পিনারায়ী বিজয়ান বলেন, অস্থিতিশীল পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, এনডিআরএফ থেকে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।