সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের শারীরিক অবস্থার অবনতি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের শারীরিক অবস্থার অবনতি দিকে যাচ্ছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কিডনি, ডায়াবেটিস, হার্ট ও শ্বাসকষ্টে রোগে ভুগছিলেন। গত এপ্রিলে শরীরে ফুসফুসে ক্যান্সার সহ নতুন কিছু রোগ ধরা পড়ায় শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার পরিবার। দলীয় কর্মকান্ড থেকে বাহিরে থাকা সাবেক এই মন্ত্রীকে গত বছরে (২৪ অক্টোবর) উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়া হলেও নানা কারনেই অসুস্থতা নিয়েই ফিরতে হয় এই সাবেক মন্ত্রীকে।

তরিকুল ইসলামের শারীরিক অবস্থার বিষয়ে জানতে চাইলে তার ছোট ছেলে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত জানান, সামগ্রিক যে চিকিৎসা পদ্ধতি রয়েছে সে পদ্ধতিতেই চিকিৎসা চলেছে। সপ্তাহে তিন দিন ডায়ালাইসিস করা সহ সকল চিকিৎসা দেওয়া হলেও দিনদিন অবস্থার অবনতি ঘটছে। তিনি বলেন, শারীরিক দূর্বলতা বেড়ে যাওয়াই কারণে তিনি নড়াচড়া করতে পারেন না। তবে কথা বলা ছাড়াও বাবা তার পরিচিত সবাইকে চিনতে পারেন।

দলের পক্ষ থেকে সাবেক এই মন্ত্রীর খোঁজ-খবর রাখা হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিভিন্ন মাধ্যমে বাবার শারীরিক অবস্থা সর্ম্পকে খবর নিচ্ছেন। তাছাড়া দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুলসহ স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, নজরুল ইসলাম খান, বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাজাহান খান, বরকত উল্লাহ বুলু, নিতায় রায় চৌধুরী সহ দলের অনেকেই কিছুদিন পরপর বাবাকে দেখতে আসছেন।