পটুয়াখালীর বাউফলের ধানদী গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে মেছেবাঘের তিন শাবক। সেকান্দার আলী বিশ্বাস বাড়ির বাগান থেকে বুধবার দুপুরে বিলুপ্তপ্রায় মেছোবাঘের ওই তিন শাবককে উদ্ধার করেন মনির হোসেন বিশ্বাস নামে এক চায়ের দোকানি।

ধানদী গ্রামের আবুল কাসেম ও সিদ্দিক ব্যাপারী জানান, সেকান্দার আলী বিশ্বাস বাড়ির বাগানে লতাপাতা পরিস্কার করতে গিয়ে একটি ঝোপের আড়ালে তিন মেছো বাঘের শাবকে দেখে চায়ের দোকানি মনির বিশ্বাস। পরে কয়েকজন মিলে ধরে ফেলে শাবক তিনটিকে। এরপর মোটরসাইকেলযোগে প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে ধানদী বাজারে নিয়ে এলে স্থানীয় উৎসুক লোকজন ভিড় জামায় অসহায় মেছোবাঘের তিন শাবককে দেখতে। কেউ কেউ বাড়িতে পোষারও আগ্রহ দেখান শাবক তিনটিকে। মনির বিশ্বাসের কাছ থেকে পাশের ইউনিয়নের জনৈক একটি গার্ডেনের লোকজন টাকার বিনিময়ে নিতে চায়। পরে স্থানীয় প্রাণ-প্রকৃতি-প্রতিবেশ রক্ষায় ‘সেভ দি বার্ড এ্যান্ড বি’ নামে আন্দোলন কর্মীদের তৎপরতায় উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা পিজুস চন্দ দে শাবক তিনটিকে উদ্ধারের জন্য লোক পাঠান তার দপ্তরের। বাগানে ধরা পড়ার সময় ও মা বাঘটিকে কাছে না পেয়ে কাবু হয়ে পড়েছে শাবক তিনটি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিজুস চন্দ্র দে জানান, ‘শাবক তিনটিকে উদ্ধারে লোক পাঠানো হয়েছে। সংশ্লিস্ট দপ্তরের লোকজনের মাধ্যমে পরিচর্যার পর অবমুক্ত করা হবে শাবক তিনটিকে।